রাস্তার সরকারী ইট এখন থাকে পুকুরে

Feature Image

মহম্মদপুর (মাগুরা) থেকে মাহাবুব ইসলাম উজ্জ্বলঃ  মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলার কলাগাছি গ্রামের রাজেন্দ্র শিকদারের পুকুরের সামনে হতে একটি নির্মানাধীন রাস্তার ইট হারানোর অভিযোগে স্থানীয় পুকুর ও ডোবায় তল্লাশি চালানো হয়েছে। বুধবার সকাল ১০ টার সময় পুকুর ও ডোবা তল্লাশি চালিয়ে প্রায় ৪ হাজার ইট উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সূত্র জানায়, উপজেলার নহাটা ইউনিয়নের কলাগাছি গ্রামে ৫৮৪ কিলোমিটার রাস্তা মেরামতের কাজ পায় রহিমা এন্টারপ্রাইজ নামের একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। ওই ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের মালিক মাগুরার সদরের রাসেল মুন্সি নামে এক ব্যক্তি। রাস্তার কাজ চলা অবস্থায় রাতের আধারে কে বা কাহারা সরকারী ইট রাস্তার পাশে পুকুরে ফেলে রাখে।

ঘটনার দিন বুধবার সকালে স্থানীয় শিশুরা পুকুরে গোসল করতে গেলে তাদের পায়ে ইট বাঁধে। স্থানীয় লোকজন বিষয়টি ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানকে জানালে ওই প্রতিষ্ঠান মালিক বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করে।

পরে মহম্মদপুরের নহাটা তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশের এ এস আই মাসুম আলী ঘটনাস্থলে যান এবং লোকজন দিয়ে প্রায় ৪ হাজার ইট উদ্ধার করেন। উদ্ধারকৃত ইটের মধ্যে ধর্মীয় শিক্ষক নুরুল হুদা খানের পুকুর থেকে ১৪’শ, সবুরের পুকুর থেকে ৯০০’শ, শাহাদাৎ এর পুকুর থেকে ৭০০’শ, ও মোসলেমের পুকুর থেকে ৫০ খানা ইট উদ্ধার করা হয়েছে। যার গায়ে লেখা ছিল আরব ও তারা। উদ্ধার করা ইট ম্যানেজার আসলামের জিম্মায় বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে।

এ ব্যাপারে নহাটা পুলিশ কেন্দ্রের ওসি তদন্ত মোঃ শাখাওয়াৎ হোসেন বলেন, উদ্ধারকৃত ইটের সংখ্যা প্রায় ৪ হাজার। এখনো কোন লিখিত অভিযোগ পাইনি পেলে অবশ্যয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

আরো খবর »