৫টি অদ্ভুত জিনিসকে নিষিদ্ধ করেছে যে ৫টি দেশ!

Feature Image

ভারতে প্রকাশ্যে মদের বিজ্ঞাপন নিষিদ্ধ। আবার সালমান রুশদির ‘দ্য স্যাটানিক ভার্সেস’ উপন্যাসটিও নিষিদ্ধ।
এখন, কেউ যদি মদের সঙ্গে রুশদির উপন্যাসের একটা প্যারালাল টানতে যান, তবে কিছুই বলার থাকে না।

কখন কোন বস্তু কোথায় নিষিদ্ধ হবে, তা সত্যি সত্যি আগাম জানা সম্ভব নয়। পৃথিবীর ৫টি দেশের কথা এখানে রাখা হল, যেখানে এমন কারণে এমন ৫টি বস্তু নিষিদ্ধ, যা অন্য দেশের নাগরিকরা ভাবতেও পারেন না। আমাদের আজকের এই প্রতিবেদনে রাখা হল সেই তালিকা-

১। নীল রংয়ের জিনস-

উত্তর কোরিয়ায় নিষিদ্ধ। কারণ এই রং নাকি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রতীক। কালো জিনস চলতে পারে। শাসক কিম জং-উন সেদেশে পিয়ার্সিংও নিষিদ্ধ করেছেন।

২। চিউয়িং গাম-

সিঙ্গাপুরে নিষিদ্ধ। আমদানি বা বিক্রি করলে কপালে দুঃখ আছে। কিন্তু দাঁতের ডাক্তারের প্রেসক্রিপশন থাকলে যত ইচ্ছে চিবোনো যায়।

৩। ফেসবুক-

পাকিস্তানে নিষিদ্ধ। ২০১০ সালে পাকিস্তান ফেসবুককে ব্লক করে। কারণ ফেসবুকে কেউ মহানবী হজরত মহম্মদের ছবি আঁকার এক প্রতিযোগিতা আহ্বান করেছিল। পাকিস্তান সরকারের টেলিকমিউনিকেশন মন্ত্রক ইউটিউব ও উইকিপিডিয়াও ব্যান করে রেখেছে।

৪। শব্দ হয় এমন জুতো-

ইতালিতে নিষিদ্ধ। গোটা দেশে না হলেও ক্যাপ্রি নামের শহরটিতে এমন জুতো পরলে খেসারত দিতে বাধ্য আপনি। তা ছাড়া, সাগরবেলায় বালির প্রাসাদ বানানোও এদেশে নিষিদ্ধ।

৫। প্রকাশ্যে নাচানাচি-

কুয়েতে নিষিদ্ধ। এমনকী, সঙ্গীতানুষ্ঠানে মাথা নাড়ানো, তাল দেওয়াও নিষিদ্ধ। তবে হাততালি চলতে পারে।

আরো খবর »