‘ট্রাম্প ও কিমের বাকযুদ্ধ কিন্ডারগার্টেনের শিশুদের মত’

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও উত্তর কোরিয়ার শীর্ষনেতা কিম জং উনের মধ্যে বাকযুদ্ধ কিন্ডারগার্টেনের শিশুদের সংঘাতের মত বলে অভিহিত করেছেন রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভ।

শনিবার সকালে বিবিসি অনলাইন এ খবর জানায়। খবরে বলা হয়, ডোনাল্ড ট্রাম্প উত্তর কোরিয়াকে ধ্বংস করার হুমকি দেওয়ার পর উ. কোরিয়ার কিম জং উন ট্রাম্পকে ‘মানসিকভাবে বিকারগ্রস্ত’ ও ‘ভীমরতিগ্রস্ত বৃদ্ধ’ বলে বিদ্রুপ করেন। এদিকে, ট্রাম্প এক টুইট বার্তায় কিমকে ‘পাগল মানুষ’ বলে উল্লেখ করেন।

উ. কোরিয়ার বেপরোয়াভাবে পারমাণকি ও ক্ষপণাস্ত্র পরীক্ষা চালানোর বিষয়ে কিম জং উনকে ইঙ্গিত করে সের্গেই লাভরভ বলেন, উগ্রস্বভাব ব্যক্তির শান্ত হতে একটি বিরতির প্রয়োজন ছিল।

তিনি বলেন, হ্যাঁ, উত্তর কোরিয়ার পারমাণবিক সামরিক কর্মকাণ্ড নিশ্চুপভাবে দেখা গ্রহণযোগ্য নয়। একই সঙ্গে কোরিয়ান উপদ্বীপে সহিংস পরিস্থিতিও কাম্য নয় বলেও জানান সের্গেই।

রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, কিন্ডারগার্টেনের শিশুরা যখন সংঘাত শুরু করে, কেউ তাদের থামাতে পারে না। আবেগ দিয়ে নয়, চীনের সঙ্গে আমরা এ বিষয়ে যৌক্তিক প্রক্রিয়ায় প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখবো।

জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞা থাকা সত্ত্বেও একের পর এক পারণামকি ও  ক্ষেপণাস্ত্র পারীক্ষা চালিয়ে যাচ্ছে উ. কোরিয়া। যা নিয়ে বরবরই উদ্বিগ্ন যুক্তরাষ্ট্র। এতে চীন এবং জাপানও শঙ্কিত। এ নিয়ে ওয়াশিংটন প্রায়ই পিয়ংইয়ংকে সতর্ক করে দেয়। তবে পরিস্থিতির কোনো পরিবর্তন হয় না, বরং আরো ঘোলাটে হয়।

সম্প্রতি জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনের ভাষণে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প উত্তর কোরিয়া উড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেন। সেটাকে ‘ঘেউ-ঘেউ করা কুকুরের চিৎকার’ বলে অভিহিত করেছেন উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও কূটনীতিক রি ইয়ং হো। এতে দু’দেশের মধ্যে উত্তেজনা অরো ছড়িয়ে পড়েছ। যা নিয়ে এখন ট্রাম্প ও কিমের মধ্যে চলছে বাকযুদ্ধ ও কাদা ছোড়াছুড়ি।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »