বিসিবির কমিটির বিরুদ্ধে হাইকোর্টের রুল

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

ঢাকা:  বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) বর্তমান পর্ষদকে কার্যক্রম থেকে কেন বিরত রাখার নির্দেশ দেয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। আগামী ৪ সপ্তাহের মধ্যে সংশ্লিষ্টদের রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

মঙ্গলবার বিচারপতি এসএম এমদাদুল হক ও বিচারপতি ভীষ্মদেব চক্রবর্তীর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রুল জারি করেন।

এর আগে সোমবার এ সংক্রান্ত রিটের শুনানি নিয়ে আদালত আদেশের জন্য আজকের দিন ঠিক করেছিলেন।

গত রোববার হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় বিসিবির সাবেক পরিচালক স্থপতি মোবাশ্বের হোসেনের পক্ষে ব্যারিস্টার মাহবুব শফিক বিসিবির বার্ষিক সাধারণসভার (এজিএম) বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে এ রিটটি দায়ের করেন।

রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম, রিটকারীর পক্ষে শুনানি করেন এ জে মোহাম্মদ আলী।

এ জে মোহাম্মদ আলী বলেন, আদালত এ বিষয়ে রুল জারি করলেও বিসিবির এজিএমে কোনো বাধা নেই।

প্রসঙ্গত, গত ১৭ সেপ্টেম্বর বিসিবির গঠনতন্ত্রসংক্রান্ত এক মামলায় আপিলের রায়কে নিজেদের পক্ষে দাবি করে ২ অক্টোবর বার্ষিক সাধারণসভা ও বিশেষ সাধারণসভার তারিখ ঘোষণা করায় ক্রিকেট বোর্ডের বর্তমান পরিচালনা পর্ষদকে আইনি নোটিশ পাঠান স্থপতি মোবাশ্বের হোসেন।

তিনি বলেন, রায় অনুযায়ী বিসিবির বর্তমান পরিচালনা পরিষদের কোনো বৈধতা নেই সাধারণসভা ঘোষণা করার। তারপরও তা করায় সাধারণসভা ও বিশেষসভাসহ বোর্ডের সব কার্যক্রম বন্ধের জন্য বিসিবি, বিসিবি সভাপতিসহ সাত ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান বরাবর তিনি এ আইনি নোটিশ পাঠান।

ওই নোটিশের কোনো জবাব না আসায় রিট দায়ের করা হয়েছে বলে জানান বিসিবির এ সাবেক পরিচালক।

এদিকে বিসিবির সভাপতিসহ পরিচালকদের দাবি, রায়ের কোথাও লেখা নেই যে বিসিবির কমিটিকে অবৈধ বলেছেন আদালত। বিসিবির গঠনতন্ত্রসংক্রান্ত  মামলায় গত ২৬ জুলাই আপিল বিভাগের দেয়া রায় নিজেদের পক্ষে দাবি করে আগামী ২ অক্টোবর বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) ও বিশেষ সাধারণ সভার তারিখ ঘোষণা করেছে বোর্ডের বর্তমান পরিচালনা পরিষদ।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »