নগ্ন বক্ষের মেয়েদের পূজা করাই এই মন্দিরের রীতি!

Feature Image

প্রকাশ্যে এল ভারতের এক মন্দিরের প্রচলিত অদ্ভুত নিয়ম। যেখানে নারীদের থাকতে হয় উন্মুক্তবক্ষে।
শুধুমাত্র গয়না দিয়ে ঢাকতে হয় শরীরের উপরের অংশ। আর তাদের দায়িত্বে থাকনে এক পুরুষ পুরোহিত। সম্প্রতি এই রীতির বিরুদ্ধে নির্দেশ দিয়েছে দেশটির প্রশাসন। বলা হয়েছে, এবার থেকে পোশাক পরে আসতে হবে। আর সেই সূত্রেই প্রকাশ্যে এসেছে এই রীতি।

জানা গেছে, তামিলনাড়ুর মাদুরাইয়ে ওই মন্দিরে নিয়মের অজুহাত দেখিয়ে উন্মুক্ত বক্ষে মেয়েদের নাচতে বাধ্য করা হয়। তারপর তাদের পূজা করা হয় দেবীরূপে। ওই মন্দিরের বাইরে নিয়ম অনুযায়ী সাতজন মেয়েকে খুব সুন্দর করে সাজিয়ে দাঁড় করানো হয় দেবীরূপে পূজা করার জন্যে। তাদের দেহের উপরাংশে কোনও পোশাক থাকে না। তার জায়গায় গয়না দিয়ে পুরো বক্ষদেশ ঢাকা থাকে। ১৫ দিন ধরে ওই সাতজন মেয়েকে, মন্দিরের একজন পুরুষ পুরোহিতের তত্ত্বাবধানে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। সেই সমস্ত মেয়েদেরই মন্দিরে পাঠানো হয় যারা বয়ঃসন্ধিতে এখনও পৌঁছয়নি।

মাদুরাইয়ের কালেক্টর কে ভীরা রাঘব রাও জানিয়েছেন, ওই মন্দিরে এই প্রথা প্রাচীনকাল থেকে চলে আসছে। তিনিই মেয়েগুলোকে যেকোনও রকম হেনস্থার হাত থেকে রক্ষা করতেই বক্ষাদেশ ঢাকা দেওয়ার নির্দেশিকা দিয়েছেন। এছাড়া একদল কর্মকর্তা মন্দিরের বিভিন্ন সদস্য এবং ওই মেয়েগুলোর পরিবারের সঙ্গে কথা বলে জেনেছেন, সেখানে কখনও কোনওরকমের যৌন হেনস্থার ঘটনা ঘটেনি।

খবর কলকাতানিউজ টোয়েন্টিফোর সেভেনের

আরো খবর »