স্বামীর মৃত্যুর একদিন পর চিরকুট লিখে স্ত্রীর আত্মহত্যা

Feature Image

ব্রাহ্মণবাড়িয়া: ‘আরে খোকার সাথে মাটি দিবেন। আমি খোকারে ছাড়া থাকতে পারমোনা, বিদায়।’ এমন চিরকুট লিখে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শহরের কান্দিপাড়া এলাকায় একটি ভাড়া বাসায় সিলিং ফ্যানের সাথে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন গৃহবধূ ঋতু আক্তার (১৯)।

বুধবার (২৭ সেপ্টেম্বর) সকালে শহরের কান্দিপাড়া এলাকার বাহার মিয়ার বাড়ির স্টোররুম থেকে ওই গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

এর আগে সোমবার বিকেলে রাজধানীর দক্ষিণখান এলাকার একটি ভাড়া বাসায় ফাঁসিতে ঝুলে আত্মহত্যা করেন তার স্বামী খোকা মিয়া। পরদিন মঙ্গলবার বিকেলে তার মরদেহ নানার বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের কান্দিপাড়া এলাকায় দাফন করে স্বজনরা। আত্মহত্যাকারী স্বামী-স্ত্রী রাজধানীর উত্তরায় একই গার্মেন্টসে শ্রমিকের কাজ করতেন।

নিহতের পারিবারিক সূত্র জানায়, প্রেমের টানে এক বছর আগে তারা পালিয়ে বিয়ে করেন। বিষয়টি উভয় পরিবার মেনে না নেয়ায় তারা আলাদা বাসায় থাকতেন। স্বামীর আকস্মিক আত্মহত্যার শোক সইতে না পেরে ওই গৃহবধূও আত্মহত্যা করে থাকতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

মরদেহ উদ্ধারকারী ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার উপপরিদর্শক মিজানুর রহমান জানান, ঘরের সিলিংয়ের সঙ্গে শাড়ি প্যাঁচিয়ে গলায় ফাঁস লাগায় ওই গৃহবধূ। তার মরদেহের পাশে একটি চিরকুট পাওয়া গেছে। আই ব্রু দিয়ে লেখা ওই চিরকুটে উল্লেখ করা হয়েছে, ‘আরে খোকার সাথে মাটি দিবেন। আমি খোকারে ছাড়া থাকতে পারমোনা, বিদায়।’

তিনি আরও জানান, ওই গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

আরো খবর »