হত্যা মামলায় আবারও নির্দোষ প্রমাণিত হলেন এই অভিনেতা

Feature Image

১৯৯৮ সালে ‘হাম সাথ সাথ হ্যায়’ ছবির শুটিং চলাকালীন বিলুপ্তপ্রায় দুই প্রজাতির হরিণ হত্যা মামলার আসামি সালমান খান। কৃষ্ণসার হত্যা ও বেআইনি অস্ত্র মামলা দুটিতেই নিম্ন আদালতে সালমানের এক ও পাঁচ বছরের সাজার রায় ঘোষণা করে। ভারতের রাজস্থানের যোধপুর আদালতে আবারও কৃষ্ণসার হত্যা মামলার শুনানি ছিল। সেই অভিযোগ খারিজ করে দিল আদালত।

সালমান খানের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছিলেন দেশটির বন দফতরের এক কর্মকর্তা। বন দফতরের সেই কর্মকর্তা অভিযোগ তোলেন, সালমান খান ভুল তথ্য দিয়ে আদালতকে বিপথে চালিত করার চেষ্টা করছেন। এই নিয়ে আদালতের কাছে একটি আবেদনপত্রও জমা দেন তিনি। বুধবার সেই আবেদনের ভিত্তিতে আদালতে শুনানি ছিল। সেখানেই সালমানের বিরুদ্ধে অভিযোগ আদালত বাতিল করে দেয়।

বলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেতা সালমান খান জীবনের নানা ক্ষেত্রে সফল হলেও বিভিন্ন সময়ে বিতর্কেও জড়িয়েছেন। এর আগে হিট অ্যান্ড রান মামলা থেকে নিজেকে নিরপরাধ প্রমাণ করার পর কৃষ্ণসার হত্যা মামলায়ও হাইকোর্টে বেকসুর খালাস পেয়েছিলেন তিনি।

সালামানের বিরুদ্ধে অভিযোগ, ১৯৯৮ সালের অক্টোবর মাসে কৃষ্ণসার হরিণ হত্যা করেন সালমান খান। আদালতে সেই মামলা এখনও চলছে। তবে শুধু সালমান খান নয়, মামলায় নাম জড়ায় সাইফ আলী খান, টাবু, সোনালি বেন্দ্রে, নীলমসহ একাধিক তারকার। অভিযোগ, হাম সাথ সাথ হ্যায় ছবির শুটিং চলাকালীন যোধপুরের কঙ্কনি গ্রামে ২টি কৃষ্ণসার হরিণ হত্যা করেন তারা। এ নিয়ে এলাকার বিষ্ণোই সম্প্রদায় বিদ্রোহ করে। সালমানসহ বাকিদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছিল এরপরেই।

এই মুহূর্তে ক্যাটরিনা কাইফের সঙ্গে ‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’ ছবির কাজ শেষ করে বিগ বস অনুষ্ঠানের সঞ্চালকের ভূমিকা পালন করছেন সালমান। এছাড়াও শাহরুখ খানের আসন্ন একটি সিনেমায় অতিথি চরিত্রে অভিনয় করার কথা রয়েছে তার।

সূত্র: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

আরো খবর »