নতুন বিয়ে, অতঃপর স্বামীকে যেভাবে বাজার করা শেখাচ্ছেন স্ত্রী

Feature Image

ছোটবেলায় বাজার করতো বাবা, বড় হয়েও নানা অজুহাতে এহেন অভ্যাস রপ্ত করা হয়নি। বাজারও করা হয়নি কখনও। কিভাবে ব্যাগ হাতে সব গুছিয়ে বাজারে কেনাকাটা করতে হয় তা একেবারেই অজানা। কিন্তু সময়ের সঙ্গে দায়িত্বেরও পরিবর্তন হয়।

এখন তো আর সেই ছোট্ট ছেলেটি নেই। বড় হয়ে বিয়ে করার পর স্ত্রীকে তো আর অজুহাত দেখিয়ে ঘরে বসে থাকলে চলবে না। ব্যাগটা হাতে কিংবা কাঁধে ঝুলিয়ে যেতেই হবে বাজারে।

নতুন বিয়ে করার পর বাজার করা নিয়ে এমনই এক কঠিন বিপাকের মুখে পড়েছেন ভারতীয় এক স্বামী। শেষ পর্যন্ত বাধ্য হয়ে স্ত্রী ইরা গোলবার (২৯) কোন বাজার কিভাবে কিনতে হবে তা শেখানোর পাশাপাশি প্রতিদিন স্বামীর হাতে সুন্দর করে একটা বাজারের লিস্ট তৈরি করে ধরিয়ে দেন।

এমন ঘটনা সম্প্রতি গণমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়ায়ও বিষয়টি আলোচনায় এসেছে।

পেশায় আইটি বিশেষজ্ঞ ইরার স্বামী গৌরব নাকি খুব ভালো বাজার করতে পারেন না। পরামর্শ দিতে দিতে ক্লান্ত হয়ে শেষে লম্বা তালিকাটি ধরিয়ে দেন। গত ২৩ সেপ্টেম্বর তালিকাটির ছবি তুলে টুইটারে পোস্ট করেন ইরা। সঙ্গে লিখেন, এটা গত সপ্তাহে আমার স্বামীকে দিয়েছিলাম! আপনারাও এ তালিকা অনুসরণ করতে পারেন।

অনেকেই পরে তালিকাটির ব্যাখ্যা করতে বললে ইরা টুইটারে ব্যাখ্যাও দেন।

বিবিসিকে ইরা বলেন, তিন বছর আগে আমার সঙ্গে গৌরবের বিয়ে হয়। বিয়ের পর আমরা ঘরের কাজ ভাগ করে নিই। সে বলেছে রান্না করবে। কিন্তু পরে আবিষ্কার করলাম সে রান্নার কিছুই জানে না। বাজার করতে পাঠালাম। একাধিকবার নিম্নমানের-পঁচা জিনিস নিয়ে এসেছে। বুঝেছি গৌরভের অনভিজ্ঞতার সুযোগ নিচ্ছে বিক্রেতারা। এ নিয়ে ঝগড়াও হয়েছে আমাদের। পরে জিনিসপত্রের বর্ণনাসহ একটা তালিকা ধরিয়ে দিলাম এবং এটা বেশ কাজে দিয়েছে।

বাজার নিয়ে স্ত্রীর এমন কাণ্ডকীর্তিতে শেষ পর্যন্ত কিন্তু স্বামী গৌরবও খুশি। তার কথায়- এখন তিনি বাজারে গিয়ে খুব কম ভুল করেন। আর যদি কোনও ভুল করেই ফেলেন তবে ঘরে এসে স্ত্রীকে সাফ বলে দেন- ‘কই তুমি তো এমন কথা ভেতরে লিখে দাওনি!’ তাদের এই বাজারকাণ্ডটিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেকে নবদম্পতির রোমান্টিকতার অংশ হিসেবেও দেখছেন।

আরো খবর »