প্রধানমন্ত্রীর উদ্যোগে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে সোচ্চার বিশ্বনেতারা

Feature Image

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, মিয়ানমার থেকে আসা রোহিঙ্গাদের প্রতি মানবতা দেখিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গৃহীত পদক্ষেপের কারণে বাংলাদেশ আজ জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে প্রশংসা অর্জন করেছে।

শুক্রবার রাজধানীর মিরপুরে হার্ট ফাউন্ডেশন মিলনায়তনে বিশ্ব হার্ট দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি। হার্ট ফাউন্ডেশন এই সভার আয়োজন করে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে খাদ্য ও চিকিৎসার ব্যবস্থা করার পাশাপাশি তাদেরকে ফিরিয়ে নেয়ার জন্য মিয়ানমার সরকারের প্রতি চাপ সৃষ্টি করতে বিশ্ব জনমত গড়ে তুলছেন। তার কূটনৈতিক উদ্যোগের কারণে বিশ্বের নেতারা মিয়ানমার সরকারের বর্বরতার বিরুদ্ধে সোচ্চার হচ্ছেন।

এ সময় হৃদরোগ ও অন্যান্য সংক্রামক রোগ থেকে সুরক্ষিত রাখতে তামাক ও মাদক সেবন থেকে দূরে থাকার জন্য সচেতনতা বৃদ্ধির আহ্বান জানান মোহাম্মদ নাসিম। তিনি বলেন, ধূমপান ও তামাকজাত দ্রব্যের ব্যবহার জনসাস্থ্যের জন্য হুমকি। হৃদরোগে আক্রান্ত ও জটিল করে তোলার পেছনেও তামাকজাত দ্রব্য সহায়ক ভূমিকা রাখে।

নাসিম বলেন, সম্মিলিতভাবে ব্যাপক সচেতনতা সৃষ্টি করে এবং আইনের যথাযথ প্রয়োগের মাধ্যমে এ দেশের মানুষকে তামাকের ভয়াল গ্রাস থেকে রক্ষা করতে পারব। আর গড়ে তুলতে পারব একটি সুস্থ, সরল ও উৎপাদনশীল দেশ। ধোঁয়াযুক্ত ও ধোঁয়াবিহীন সব ধরনের তামাকই স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর।

তিনি বলেন, তামাক ব্যবহারের প্রত্যক্ষ ফল হিসেবে বাংলাদেশে প্রতিবছর ৩০ বছরের বেশি বয়স্ক জনগোষ্ঠীর মধ্যে ৫৭ হাজার মৃত্যুবরণ করেন এবং পঙ্গুত্ববরণ করেন প্রায় ৪ লাখ মানুষ।

ফাউন্ডেশনের সভাপতি জাতীয় অধ্যাপক ব্রিগেডিয়ার (অব.) এম এ মালিকের সভাপতিত্বে সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন ফাউন্ডেশনের সেক্রেটারি জেনারেল অধ্যাপক ডা. আব্দুল আওয়াল প্রমুখ।

আরো খবর »