মোদি সরকারের সমালোচনায় হরভজন সিং

Feature Image

বুধবার পরিবার নিয়ে একটি রেস্তোরায় নৈশভোজে গিয়েছিলেন ভারতীয় ক্রিকেটার হরভজন সিং। সবকিছুই ঠিকঠাক ছিল। কিন্তু ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের গুডস অ্যান্ড সার্ভিস ট্যাক্সের (জিএসটি) কারণে হরভজনকে গুণতে হয়েছে বড় অঙ্কের বিল। যে কারণে নিজের মেজাজ ধরে রাখতে পারেননি ডানহাতি এই অফ স্পিনার। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং মোদি সরকারের জিএসটি নীতির সমালোচনায় সোচ্চার হন তিনি।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে খুব একটা সোচ্চার হতে দেখা না গেলেও জিএসটি নীতি নিয়ে চটেছেন ভারতের এই তারকা ক্রিকেটার। বিল দেখেই টুইটারে নিজের ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্ট থেকে হরভজন লেখেন, ‘রেস্তোরায় খাওয়ার পর বিল মেটানোর সময় মনে হচ্ছিল রাজ্য সরকার এবং কেন্দ্রীয় সরকার আমাদের সঙ্গেই তাদের ডিনার সেরেছে।’

চলতি বছর অনেক আয়োজন করে জিএসটি চালু করেছে মোদি সরকার। দেশব্যাপী গুডস অ্যান্ড সার্ভিস ট্যাক্স নিয়ে নতুন স্বপ্ন দেখার কথা সাড়ম্বরে প্রচার করেছে কেন্দ্রীয় শাসক দল। তবে মোদি সরকারের এই নতুন আর্থিক নীতি প্রত্যেককে সন্তুষ্ট করতে পারেনি হয়তো। জিএসটি চালু করায় নরেন্দ্র মোদির সমালোচনা করেছেন রাহুল গান্ধী, সীতারাম ইয়েচুরি ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এবার সেই তালিকায় যুক্ত হয়েছে হরভজন সিংয়ের নাম। সরাসরি মোদির সমালোচনা না করলেও প্রকাশ্যেই তার সরকারের নীতির বিরোধিতা করেন তিনি। হরভজনের এই টুইটের পর তার ভক্ত ও সাধারন মানুষ জিএসটি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে সমালোচনার ঝড় তুলেছেন।

আরো খবর »