মেয়েকে ধর্ষনের অভিযোগে আটক বাবা

Feature Image

দিনের পর দিনে মেয়েকে ধর্ষন করার অভিযোগে পুলিশ আটক করল বাবাকে। ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার নন্দকুমার থানার টিকারামপুরে। অভিযুক্তের নাম শংকর গায়েন। বাড়ি খেজুরি থানার কুঞ্জপুর গ্রামে। অভিযুক্ত শংকরকে নন্দকুমার থানার পুলিশ আটক করেছে।

গত ১৭ বছর আগে নন্দকুমার থানার টিকারামপুরের বিজলী দাসের সঙ্গে খেজুরি থানার শংকর গায়েনের বিয়ে হয়। তাদের ১৬ বছরের একটি মেয়ে ও ১২ বছরের একটি ছেলেও রয়েছে। শংকরের অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে বিজলীদেবি তার ছেলে ও মেয়েকে নিয়ে বাপের বাড়িতে চলে আসে। সেখানেই তাঁরা থাকতে শুরু করে। মাঝে মধ্যে দেখা করার নাম করে শংকর শশুরবাড়িতে আসত।

অভিযোগ, সেই সময় মেয়েকে ভয় দেখিয়ে শারিরিক অত্যাচার ও ধর্ষন করত। বাবার এই কুকর্মের কথা জানিয়ে দেওয়ার কথা বললে মা ও তার ভাইকে খুন করে দেওয়ার হুমকি দিত। এই ভয়ে মেয়েটি কাওকে কিছু বলতে পারেনি। গতকাল অর্থাৎ শুক্রবার বিকেলে শংকর তার শশুরবাড়িতে আসে। এসে স্ত্রী বিজলীদেবির সঙ্গে কথা কাটাকাটি হতে থাকে। সেই সময় বিজলীদেবির মেয়ে বাবার কুকির্তর কথা সব বলে দেয়। এরপর নন্দকুমার থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন বিজলীদেবি। নন্দকুমার থানার পুলিশ এই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। অভিযুক্ত শংকরকে আটক করে জিঞ্জাসাবাদ করছে বলে জানা গিয়েছে।

আরো খবর »