ইমরুলের ক্যাচ মিসে লিড বাড়ছে প্রোটিয়ার

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

ক্রীড়া ডেস্ক: দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে তাদের মাটিতে ৯ বছর পর টেস্ট খেলছে বাংলাদেশ। ঘরের মাঠে টাইগাররা যেমন শক্তিশালী তেমনি প্রোটিয়ারাও তাদের মাটিতে শক্তিশালী। যার প্রমাণ প্রথম ইনিংসে পেয়েছে বাংলদেশ।

৫ সেশস বল করে স্বাগতিকদের মাত্র ২টি উইকেট নিতে পেরেছিল বাংলাদেশের বোলাররা। একটি উইবেট রানআউটের কল্যাণে। প্রথম ইনিংসে রানের পাহাড় গড়ে স্বাগতিকরা।

৪৯৬ রান করে। জবাব দিতে নেমে বাংলাদেশ অলআউট হয় ৩২০ রানে। যথারীতি ব্যর্থ ইমরুল কায়েস। লিটন দাসও ভালো করতে পারেনি। তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম ও সাব্বির রহমান যা করেছেন তা দলের জন্য যথেষ্ট ছিল না।

তবে  উপেক্ষার জবাব ভালোভাবেই দিয়েছেন মুমিনুল হক এবং মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। দুজনের ব্যাটিং দৃঢ়তায় ফলোঅন এড়ায় বাংলাদেশ। মুমিনুল এবং রিয়াদের বিদায়ের পর আর দাঁড়াতে পারেনি মুশফিক বাহিনী।

১৭৬ রানের লিড নিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা তাদের দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করে। লিড লাঞ্চ বিরতির আগে ৩৭৯ রানে দাঁড়িয়েছে। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত প্রোটিয়াদের সংগ্রহ ৩ উইকেটে ২০৩ রান।

মোস্তাফিজ ২টি এবং শফিউল ১টি উইকেট লাভ করেন।

অবশ্য বাংলাদেশকে উইকেট থেকে বঞ্চিত করেছেন ইমরুল কায়েস। পয়েন্টে টিম্বা বাভুমার দেয়া একেবারে সহজ ক্যাচ তালুবন্দি করতে ব্যর্থ হন তিনি। ব্যাটিংয়ে ব্যর্থ ইমরুল কায়েস ফিল্ডিংয়েও ব্যর্থতার প্রমাণ দিলেন।

ব্যাটিংয়ে বার বার ব্যর্থ ইমরুল কায়েস দলে সুযোগ পেলেও তা কাজে লাগাতে পারছেন না। প্রথম ইনিংসে করেছেন মাত্র ৭ রান।

ক্রিকেটপ্রেমীদের মতামত, ব্যর্থ ইমরুল কায়েসকে সুযোগ না দিয়ে অন্য কোনো সিনিয়র ক্রিকেটারকে বা ঘরোয়া ক্রিকেটে ভালো করা কাউকে সুযোগ দেয়া উচিত।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

 

আরো খবর »