গোপালগঞ্জে রিকের উদ্যোগে প্রবীণ দিবস পালিত

Feature Image

জেলা প্রতিনিধি,স্বাধীনবাংলা২৪.কম

গোপালগঞ্জ থেকে এস এম সাব্বির: ১ অক্টোবর “আন্তর্জাতিক প্রবীণ দিবস-২০১৭। জাতিসংঘ ঘোষিত এবাবের প্রতিপাদ্য বিষয় হলো  Stepping into the Future: Tapping the Talents, Contributions

‘আগামীর পথে, প্রবীণের সাথে’। “আন্তর্জাতিক প্রবীণ দিবস-২০১৭ এর প্রতিপাদ্য বিষয়টি বাংলাদেশের জন্য নিঃসন্দেহে খুবই সময়োপযোগী।

প্রবীণদের কল্যাণে রিসোর্স ইন্টিগ্রেশন সেন্টার (রিক) প্রায় দুই যুগ ধরে প্রবীণদের কল্যাণের জন্য বিভিন্ন কার্যক্রম চালিয়ে আসছে। রিকের এর সবচেয়ে বড় বৈশিষ্ট্য হচ্ছে সমন্বিত উদ্যোগ। রিক একদিকে তৃণমূল প্রবীণদের ক্ষমতায়নে সহায়তা করছেন, অন্যদিকে স্থানীয় ও জাতীয় পর্যায় সরকারের প্রতিষ্ঠান গুলোকে প্রবীণদের বিষয়ে অবহিত ও সচেতন করার চেষ্টা করছেন। এভাবে সরকারি সেবা সহায়তাকে প্রবীণবান্ধব করতে রিক অবিরাম কাজ করে চলেছে।

প্রবীণদের বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে কাজ করতে গিয়ে রিক তার অভিজ্ঞতা থেকে উপলব্ধি করেছে যে, দুস্থ ও দরিদ্র প্রবীণদের সুনির্দিষ্ট চাহিদা পূরণের জন্য আর্থিক এবং বস্তুগত সহায়তা প্রদান করা প্রয়োজন। এই পরিপ্রেক্ষিতে রিক প্রবীণদের কল্যাণের জন্য সংগঠনের অভ্যন্তর থেকে একটি নিজস্ব ‘প্রবীণ কল্যাণ তহবিল’ নামে কর্মসূচী বাস্তবায়ন করে আসছে যার মূল লক্ষ্য হচ্ছে দরিদ্র এবং দুস্থ প্রবীণ জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে অবদান রাখা।  ‘প্রবীণ কল্যাণ কমূসূচি’ এর আওতায় “আন্তর্জাতিক প্রবীণ দিবস-২০১৭’’ উপলেেক্ষ রিক এর কর্ম এলাকার জেলা (৯টি) এবং উপজেলা  (৬টি) পর্যায়ে র‌্যালী/মানববন্ধন/আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। স্থানীয় প্রবীণদের পাশপাশি জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে উর্ধ্বতন কর্মকর্তা, গণ্যমান্য ব্যক্তি, সাংবাদিক এবং রিক এর আঞ্চলিক ম্যানেজার সহ অন্যান্য কর্মচারী এই কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করে।

প্রবীণ দিবস হচ্ছে, সম্মানিত জেষ্ঠ্য নাগরিক সমস্যা ও অধিকার নিয়ে আলোচনার একটি দিন। এই দিনের তাৎপর্য তুলে ধরার মধ্য দিয়ে বাংলাদেশের প্রবীণদের অধিকার বিষয়সমূহ যাতে নিশ্চিত হয়, প্রবীণরা যেন তাদের সামর্থ্য অনুযায়ী মর্যাদাপূর্ণ, কর্মময় এবং আনন্দময় জীবনযাপন করতে পারেন এই বিষয় সমূহ নিয়ে চিন্তা ভাবনা করার প্রয়োজন হয়ে পড়েছে।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »