‘সরকারের আয়ু বেশি নেই’

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

ঢাকা: বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেছেন, আওয়ামী লীগ সরকারের আয়ু আর বেশি দিন নেই। সরকার দুর্বল বলেই হাঁকডাক বেশি।

সোমবার দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে এক আলোচনা সভায় এ কথা বলেন গয়েশ্বর। ‘অবাধ, নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠানে আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষণ মিশনের গুরুত্ব’ শীর্ষক এ সভার আয়োজন করেন বিএনপির সুইডেন শাখার নেতাকর্মীরা।

গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, ‘আন্দোলন-সংগ্রামের বিকল্প নেই, আগামী নির্বাচন অনিশ্চিত। আমরা ক্ষমতায় যাই বা না যাই, এই সরকারের আয়ু বেশি দিন নাই। সহায়ক সরকারের জন্য গবেষণার প্রয়োজন নেই, এরশাদ সরকারকে পদত্যাগ করাতে কয় মিনিট লাগছে?’

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য বলেন, ‘আমরা আন্দোলন করব জনগণের পক্ষে, বাধা যেখান থেকেই আসুক না কেন, বাধাকে অতিক্রম করাই লক্ষ্য। আমাদের এত যে জনসমর্থন, তার চেয়ে বেশি সম্ভাবনা হলো এই সরকারের ওপর মানুষ রুষ্ট, ক্ষুব্ধ। সরকার দুর্বল বলেই তাদের হাঁকডাক বেশি, এত কথা বলে, বাংলাদেশের সরকারের মতো এত দুর্বল সরকার পৃথিবীর কোথাও আছে কি-না জানা নেই।’

রোহিঙ্গা প্রসঙ্গে গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, ‘রোহিঙ্গারা আমাদের জন্য স্থায়ী সমস্যা হয়ে দাঁড়াবে। ইমোশন বেশিদিন থাকবে না বাস্তবতার কাছে। মিয়ানমারের বিরুদ্ধে আমরা যুদ্ধ করব না। বিদেশে শান্তি রক্ষা করতে যাব, কিন্তু নিজের দেশের কাজে লাগাব না।’

নির্বাচন নিয়ে বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘সরকার একেকবার একেকভাবে পরিবর্তন হয়। এবার আর ৫ জানুয়ারির মতো নির্বাচন করার ক্ষমতা শেখ হাসিনার নেই। ইলেকশন সম্পূর্ণ অনিশ্চিত, আন্দোলনের শিরোপা যার হাতে উঠবে তিনিই সরকার গঠন করবেন। বিএনপির মতো দল যেকেনো সময়ে জয়ের সামর্থ্য রাখে। আমরা মাঠের লোক, আমরা ভালো জানি, আমরা রাস্তার রাজা, রাজত্ব রক্ষার শিক্ষা আমাদের আছে।’

আলোচনা সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ, সুইডেন শাখার সভাপতি মিজান চৌধুরী, মিরপুর থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন দুলু প্রমুখ।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »