মানিকগঞ্জে ছিনতাইকৃত ১৬৮ ভরি স্বর্ণালংকার ও মাইক্রোবাসসহ আটক ৫

Feature Image

জেলা প্রতিনিধি, স্বাধীনবাংলা২৪.কম

মানিকগঞ্জ থেকে জালাল উদ্দিন ভিকু  : ছিনতাইকরা ১৬৮ ভরি স্বর্ণালংকার, নগদ ৫লাখ টাকা, একটি মাইক্রোবাস, ৪টি ওয়াকিটকি ও একটি ক্যামেরাসহ ৫জনকে আটক করেছে মানিকগঞ্জ পুলিশ।

রোববার সন্ধ্যায় মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলার চারিগ্রামে এই ছিনতাইএর
ঘটনা ঘটে। রাতভোর অভিযান চালিয়ে মালামাল উদ্ধার ও ৫জনকে আটক করে পুলিশ।
মানিকগঞ্জের পুলিশ সুপার মাহফুজুর রহমান নিজ কার্যালয়ে সোমবার দুপুরে
এক প্রেসব্রিফিংএ সাংবাদিকদের এই তথ্য দিয়েছেন।

পুলিশ সুপার জানান সিংগাইর উপজেলার চারিগ্রাম বাজারের মনির জুয়েলাসর্
এর ম্যানেজার কমল ও কর্মচারি পবন দোকান থেকে ১৬৮ ভরি স্বর্ণালংকার ও নগদ
৫লাখ টাকসহ রোববার সন্ধ্যায় দোকানের মালিক মনির হোসেনের বাড়িতে রওনা
দেন। চারিগ্রাম পুরাতন বাসস্ট্যান্ড এলাকায় পৌছুলে ৭/৮জন লোক নিজেদের
ডিবি পুলিশ ও সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে তাদের পথ রোধ করে দাড়ায়। এর পর তাদের
মারপিট করে কমলের কাছ থেকে স্বর্ণ ও টাকার ব্যাগ ছিনিয়ে নিয়ে একটি সাদা
নোয়া মাইক্রোবাসে ( ঢাকা মেট্রো চ-৫১- ৪৬৪১) পালিয়ে যায়। তবে সুমন
নামের একজন মাইক্রোবাসে উঠতে না পারায় স্থানীয় জনতা তাকে আটক করে।

মাইক্রোবাসের পিছনে মোটরসাইকেল নিয়ে স্থানিয়রা ধাওয়া করে। এদিকে খবর
পেয়ে সিংগাইর থানা পুলিশও পিছু নেয়। এক পর্যায়ে নবাবগঞ্জ উপজেলার
বালুখন্ড বাজারের দক্ষিনে বালুতে আটকে যাওয়া মাইক্রোবাস থেকে আরও
তিনজনকে ধরে ফেলে। পরে এদের দেয়া তথ্য অনুযায়ী নবাবগঞ্জ উপজেলার উত্তর বালুঘন্ড
এলাকা থেকে সিংগাইর পুলিশ আটক করে আরও একজনকে। তার কাছ থেকে উদ্ধার
করা হয় স্বর্ণালংকার , নগদ টাকাসহ ছিনতাইকরা মালামাল। পুলিশ সুপার জানান
এদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থার পক্রিয়া চলছে।

আটককৃতরা হচ্ছে সুমন, সাজ্জাদ হোসেন সম্ধসঢ়;্রাট, হামিদুল ইসলাম, রহিম
সুলতান, আল আমিন।

 

আরো খবর »