স্যুটকেস ভর্তি বিষাক্ত সাপ! পুলিশের হাতে ধরা পড়লেন এক ব্যক্তি

Feature Image

 

পূর্ব চীনের এক রেল স্টেশনে স্যুটকেস হাতে হেঁটে যাচ্ছেন মাঝবয়সী এক ভদ্রলোক। এখনই উঠবেন ট্রেনে। নিরাপত্তারক্ষীরা খেয়াল করলেন, স্যুটকেসের মধ্যে জিনিসগুলো যেন দোমড়াচ্ছে, মোচড়াচ্ছে। খোলা হল বাক্স। ভেতরে দেখা গেল কিলবিল করছে ৫০টা বিষাক্ত সাপ।

 

ওই ব্যক্তির নাম জানা যায়নি। তিনি জানিয়েছেন, তার ৪ কেজি বিষাক্ত সাপ দরকার ছিল। তাই পূর্ব ঝেইজাং প্রদেশ থেকে সস্তায় ওই সাপগুলো কেনেন, নিয়ে যাচ্ছিলেন গুয়াংঝু প্রদেশে, তাঁর বাড়িতে। বিষাক্ত সব সাপ দিয়ে মদ বানাতেন তিনি। স্নেক ওয়াইন অত্যন্ত প্রাচীন চীনা ওষুধ। হাজার হাজার বছর ধরে সাপের বিষ দিয়ে এই ওষুধ তৈরি করে আসছেন চিনা চিকিৎসক ও ওঝারা।

 

এর ফলে নাকি চুল ঝরা থেকে কুষ্ঠ- সব রকম রোগ সেরে যায়, বাড়ে কামোদ্দীপনা। সাপগুলোকে তুলে দেওয়া হয়েছে স্থানীয় ফরেস্ট পুলিশকে। তারা জানিয়েছে, প্রতিটা সাপই বন্য, কৃত্রিমভাবে জাত নয়। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে ওই ব্যক্তিকে।

কীভাবে তৈরি হয় স্নেক ওয়াইন? ভাত পচা মদ বা অন্য কোন কড়া মদের বড় পাত্রে সাপের বিষ বার করে জমানো হয়। মেশানো হয় কিছু ওষধি। এভাবে রাখা হয় মাসের পর মাস। ধীরে ধীরে বিষ মিশে যায় মদে। তৈরি হয় স্নেক ওয়াইন! খবর এবিপি আনন্দ।

আরো খবর »