ড্রাগ নয়, চাই সুস্থ জীবন

Feature Image

নিউজ ডেস্ক : ঝোঁকের বসে বা স্রেফ সঙ্গ দোষে অনেকেই ড্রাগের নেশার জড়িয়ে যান। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই যারা একবার ড্রাগ নিতে শুরু করেন তারা আর নেশার খপ্পর থেকে বেরোতে পারেন না। ফলে পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে পৌঁছয় যে বেঘোরে প্রাণ চলে যায়।

ড্রাগ নিলে শুধু শারীরিক সমস্যা নয়, এর মানসিক প্রভাবও কিন্তু মারাত্মক ক্ষতিকর।

বেশিরভাগ ক্ষেত্রে দেখা যায়, ড্রাগ নিলে হঠাৎ করে মুড পরিবর্তন, রেগে যাওয়া, হতাশা, ঘুমের সময় পরিবর্তন সহ একাধিক সমস্যা দেখা দেয়।

যারা ড্রাগ নেন, তারা কল্পনাপ্রবণ হয়ে ওঠেন। দেখা যায়, আদৌ যার অস্তিত্ব নেই এমন বিষয় বিশ্বাস করতে থাকেন তারা। ফলে বাস্তব জগতে থেকেও তারা অন্য কোনও জগতে বাস করেন।

সব কিছুতেই অধৈর্য। মনের মতো কিছু না হলেই হতাশ। একটুতেই ক্লান্তি। ড্রাগসের অন্যতম কুপ্রভাব এগুলো। চিকিৎসার পরিভাষায় একেই বলে “মুড ডিসঅর্ডার”। অনেক সময় মুডের এই রকমফেরের কারণে অনেকে আত্মহত্যার পথও বেছে নেন।

এতো গেল সাময়িক সমস্যা। ড্রাগের প্রভাব দীর্ঘতরও হয়। অনেক সময় একটানা বহুদিন ড্রাগ নেওয়ার ফলে মস্তিষ্কের কাজকর্ম বিঘিœত হয়। তাই ঝোঁকের মাথায় এমন কোনও অ্যাডভেঞ্চারে যাওয়ার আগে ভাবুন। আপনার ছোট্ট পদক্ষেপ ইতি টানতে পারে আপনার হাসিখুশি জীবনে।

আরো খবর »