শেষ শ্রোদ্ধায় সমাহিত কিংবদন্তি শ্রমিক নেতা জসিম উদ্দিন মন্ডল

Feature Image

উপজেলা প্রতিনিধি, স্বাধীনবাংলা২৪.কম

ঈশ্বরদী থেকে সেলিম আহমেদ: উত্তরাঞ্চলের প্রখ্যাত কিংবদন্তি শ্রমিক নেতা ও বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি সিপিবির উপদেষ্টা মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক কমরেড জসিম উদ্দিন মন্ডল ২রা অক্টোবর সোমবার সকাল ৬টায় ঢাকার হলেথ এন্ড হোপ হাসপাতালে চিকিৎসাধিন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। গতকাল বুধবার সকাল ১০.৩০ মিনিটের সময় ঈশ্বরদীর কেন্দ্রিয় ঈদগাহ ময়দানে জানাযা শেষে ঈশ্বরদীর কেন্দ্রিয় গোরস্থানে জসিম মন্ডলের লাশ দাফন করা হয়। এর আগে কমরেড জসিম উদ্দিন মন্ডলের লাশবাহী খাটিয়ার পাশে হাজারো মানুষ ফুলের শেষ শ্রোদ্ধা জানান।

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির উপদেষ্টা মঞ্জুর হাসান খান, সহ-সম্পাদক সাজ্জাদ জাহিদ, সহ-সম্পাদক আহসান হাবিব লাবলু, প্রেসিডিয়াম সদস্য রফিকুজ্জামান, কাফি রতন, সিপিবির কেন্দ্রিয় সদস্য আবদুর রশিদ, কেন্দ্রিয় সদস্যসাদেকুর রহমান শামিম, কেন্দ্রিয় সদস্য ইসমাইল হোসেন ও কেন্দ্রিয় যুব ইউনিয়ন নেতা খান আসাদুজ্জামান মাসুম, এছাড়া অ্যাডভোকেট আবুল কালাম আজাদ এমপি, ঈশ্বরদী উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি নায়েব আলী বিশ্বাসসহ নেতৃবৃন্দ, উপজেলা চেয়ারম্যান মকলেছুর রহমান মিন্টু, বিএনপির পক্ষে মকলেছুর রহমান বাবলুসহ নেতৃবৃন্দ, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাছরিন আক্তার, ঈশ্বরদী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আজিম উদ্দিন, বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ, ঈশ্বরদীর সাংবাদিকবৃন্দ, ঈশ্বরদী প্রেসক্লাব, ঈশ্বরদী ফটোসাংবাদিক এসোসিয়েশন, জাতীয় সাংবাদিক সোসাইটি, নাগরিক মঞ্চ, মুক্তিযুদ্ধের শহিদ স্মৃতি পাঠাগার, পৌর কাউন্সিলরবৃন্দ, সামাজিক সংগঠন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তিগত ভাবে ফুলের শেষ শ্রোদ্ধা জানান। জানাযা নামাজ পড়ান জসিম উদ্দিন মন্ডলের ভাতিজা শাহ সুফি মাওলানা আবদুল করিম।

জানাযা নামাজের আগে প্রতিক্রিয়ায় উপস্থিত ব্যক্তিরা বলেন, বর্ষিয়ান রাজনীতিবিদ কমরেড জসিম উদ্দিন মন্ডল বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি সিপিবির বিভিন্ন অনুষ্ঠানে তার বক্তব্যে বলে থাকতেন আমরা অংক কষিয়া রাজনীতি করি। হাজারো শেষ শ্রোদ্ধায় কিংবদন্তি শ্রমিক নেতা কমরেড জসিম উদ্দিন মন্ডলের অংক কষার রাজনীতির আজ অবসান হলো। কমরেড জসিম উদ্দিন মন্ডল বারবরই সাদা মাঠা জিবন-যাপন করতেন। অর্থের প্রতি তার কোন সময়ই লোভ ছিলনা। পাকিস্থানামলে জসিম উদ্দিন মন্ডল উত্তরাঞ্চলসহ দেশের বিভিন্ন শ্রমিক এলাকায় সক্রিয় ভাবে আন্দোলন সংগ্রামে জড়িয়ে পড়েন। এজন্য অনেকবার তিনি কারাভোগ করেছেন। তিনি শ্রমিক-জনসভাগুলোতে সাধারন ভাষায় সুন্দর ভাবে বক্তব্য দিতে পারতেন বলে তার সমাবেশগুলোতে প্রচুর মানুষ উপস্থিত হতো।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »