দুই বছর কারাভোগ শেষে চুয়াডাঙ্গা সীমান্ত দিয়ে এক বাংলাদেশী যুবক দেশে ফিরলো

Feature Image

চুয়াডাঙ্গা থেকে শামসুজ্জোহা পলাশঃ  প্রায় দুই বছর ভারতে কারাভোগ শেষে চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার দর্শনা সীমান্তে বিজিবি-বিএসএফ এক পতাকা বৈঠকের মাধ্যম্যে মামুন (২৭) এক বাংলাদেশী যুবক দেশে ফিরলো। বুধবার দুপুরে দর্শনা জয়নগর চেকপোষ্ট সীমান্তে ৭৬ পিলারের কাছে অনুষ্ঠিত পতাকা বৈঠকে বিএসএফ তাকে বিজিবির হাতে তুলে দেয়। পরে বিজিবি মামুনকে দামুড়হুদা মডেল থানা পুলিশে সোপর্দ করেন।

দামুড়হুদা মডেল থানা ডিউটি অফিসার নজরুল জানায়, ঢাকা মুন্সিগঞ্জ জেলার শ্রীপুর উপজেলার সাদাল গ্রামের জাহাঙ্গীর মিয়ার ছেলে মামুন (২৭) দিনাজপুরের হিলি সীমান্ত দিয়ে গত ২০১৫ সালের ২৬ অক্টোবর অবৈধ ভাবে ভারতে প্রবেশ করার পর ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বিএসএফের হাতে আটক হয়।

পরদিন বিএসএফ মামুনকে স্থানীয় থানায় সোপর্দ করলে, পুলিশ তাকে আদালতে সোপর্দ করে। সে দেশের আইন অনুযায়ী অবৈধ অনুপ্রবেশ কারি হিসেবে প্রায় দুই বছর সাজার ভোগ শেষ হলে (আজ) বুধবার বেলা এক টায় দর্শনা সীমান্তের ৭৬ পিলারের কাছে বিজিবি-বিএসএফ পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে মামুন দেশে ফিরলো।

বৈঠকে আরও উপস্থিত ছিল, দর্শনা ইমিগ্রেশন ইনচার্জ এসআই শেখ মাহাবুব, বিজিবি ক্যাম্প কমান্ডার মোকলেসুর রহমান ও বিএসএফের কোম্পানী কমান্ডার অজয় কর। পরে তাকে দামুড়হুদা থানায় সোপর্দ করা হয়েছে ।

আরো খবর »