অনুমতি ছাড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে প্রবেশ ও অবস্থানে নিষেধাজ্ঞা

Feature Image

জেলা প্রতিনিধি, স্বাধীনবাংলা২৪.কম

কক্সবাজার: সূর্যাস্তের পর থেকে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারি, সামরিক ব্যক্তিবর্গ, যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমোদন প্রাপ্ত সংস্থা, প্রতিষ্ঠান, ব্যক্তি ছাড়া অন্যান্য সকলের রোহিঙ্গা ক্যাম্প ও এর আশেপাশের এলাকায় প্রবেশ ও অবস্থানের ওপর নিষেধাজ্ঞা  আরোপ করেছে কক্সবাজার জেলা প্রশাসন।

ফৌজদারি কার্যবিধির ১৪৪(৩) ধারায় বিধানাবলে বুধবার সন্ধ্যায় এ আদেশ জারি করেন জেলা প্রশাসক মো: আলী হোসেন। এ আদেশের পর থেকে এখন থেকে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অনুমতি ছাড়া আর কেউ প্রবেশ করতে পারবে না।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফারজানা রহমান বলেন, ‘নির্ধারিত ব্যক্তি ব্যতীত রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অন্য কারও প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে জেলা প্রশাসন। নির্যাতনের শিকার হয়ে পালিয়ে আসা এই বৃহৎ জনগোষ্ঠীকে কেউ যেনো ব্যবহার করে অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে সংযুক্ত করতে না পারে, সেজন্য এই ব্যবস্থা।’

কেউ এ নিষেধাজ্ঞা অমান্য করলে তার বিরুদ্ধে ফৌজদারি কার্যবিধির ১৪৪(৩) ধারায় বিধানাবলে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান তিনি।

উখিয়ার কুতুপালং থেকে টেকনাফের মধ্যবর্তী ২০০০ একর জায়গায় রোহিঙ্গা ক্যাম্প গড়ে উঠেছে। সেখানে প্রশাসন ও আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর চোখ ফাঁকি দিয়ে প্রায়শই ঘটছে নানা অনাকাঙ্খিত ঘটনা। বসবাসরত বিশাল এ জনগোষ্ঠীর নিরাপত্তা, ত্রাণ বিতরণে শৃঙ্খলা, দালালদের হাত থেকে রোহিঙ্গাদের রক্ষা এবং অসহায় রোহিঙ্গাদের কেউ যেনো কোনরকম নাশকতামূলক কর্মকাণ্ডে ব্যবহার করতে না পারে, সেজন্য এ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে বলে কক্সবাজার জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »