খালেদা জিয়া কবে দেশে ফিরছেন?

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

ঢাকা: বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কবে দেশে ফিরবেন, দলের নেতারা তা নিশ্চিত করে বলতে পারছেন না। দলের উচ্চপর্যায়ের একটি সূত্র জানায়, খালেদা জিয়ার দেশে ফেরার তারিখ এখনো ঠিক হয়নি। তবে চলতি অক্টোবর মাসের তৃতীয় সপ্তাহে তাঁর ফেরার সম্ভাবনা আছে।

খালেদা জিয়া গত ১৫ জুলাই যুক্তরাজ্য সফরে যান। সেখানে তিনি সপরিবার থাকা ছেলে তারেক রহমানের কাছে আছেন। দলের পক্ষ থেকে বলা হয়, যুক্তরাজ্যে খালেদা জিয়া পায়ের ও চোখের চিকিৎসা নিচ্ছেন।

এদিকে আড়াই মাসেরও বেশি সময় ধরে খালেদা জিয়ার যুক্তরাজ্যে অবস্থান করা নিয়ে দলের ভেতরে-বাইরে নানা কথা আছে। সরকারি দল আওয়ামী লীগের নেতারা অভিযোগ করেছেন যে খালেদা জিয়া যুক্তরাজ্যে বসে ‘ষড়যন্ত্র’ করছেন। যদিও বিএনপির নেতারা এই অভিযোগ নাকচ করে দিয়েছেন।

খালেদা জিয়ার যুক্তরাজ্যে অবস্থানকালে ১৫ আগস্ট নিজের ৭২তম জন্মদিন, ১ সেপ্টেম্বর দলের ৩৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী এবং ২ সেপ্টেম্বর পবিত্র ঈদুল আজহা গেছে। কিন্তু বড় তিনটি দিবসেই তিনি যুক্তরাজ্যে কোনো কর্মসূচিতে অংশ নেননি। এখন পর্যন্ত যুক্তরাজ্যে দলের নেতা-কর্মীদের সঙ্গেও মতবিনিময় করেছেন বলে জানা যায়নি।

এদিকে খালেদা জিয়া দেশে ফেরার পর বিএনপির নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকারের রূপরেখা প্রকাশ করার কথা রয়েছে। এরপর সহায়ক সরকারের দাবিতে আন্দোলনে নামার পরিকল্পনা আছে বলেও নেতারা বলেছেন। দলীয় প্রধানের অনুপস্থিতিতে জেলা কমিটি পুনর্গঠনের কাজ স্থগিত রাখা হয়েছে। দলের প্রাথমিক সদস্যপদ নবায়ন ও নতুন সদস্য সংগ্রহ কার্যক্রম তিন দফা বাড়ানো হয়েছে। সর্বশেষ সময় বাড়িয়ে ১ নভেম্বর পর্যন্ত করা হয়েছে।

খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতিতে চলমান বিষয় নিয়ে বক্তৃতা-বিতর্কে সময় পার করছেন বিএনপির নেতারা। সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনীর মামলার পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশের পর বিএনপির নেতারা কিছুদিন বক্তৃতা-বিবৃতিতে সরব ছিলেন। এরপর রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে কথা বলেন, ত্রাণ তৎপরতায় অংশ নেন। সর্বশেষ প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার ছুটি নিয়ে বক্তৃতা-বিবৃতিতে ব্যস্ত আছেন নেতারা। ষোড়শ সংশোধনী ও রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে খালেদা জিয়া বিবৃতি দিলেও প্রধান বিচারপতির ছুটি নিয়ে এখন পর্যন্ত কিছু বলেননি তিনি।

খালেদা জিয়ার দেশে ফেরার বিষয়ে সুনির্দিষ্ট করে কিছু জানেন না বলে জানিয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন। তিনি বলেন, ‘চেয়ারপারসনের অনুপস্থিতিতে বিএনপির কার্যক্রম ভালোভাবেই চলছে। তিনি লন্ডন থেকে নির্দেশনা দিচ্ছেন, সময়ে সময়ে মহাসচিব আলোচনা করে করণীয় ঠিক করছেন। আমরাও মাঝে মাঝে বৈঠক করে চলমান বিভিন্ন বিষয়ে দলীয় অবস্থান তুলে ধরছি।’

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »