‘বড়াপাও’ বিক্রি করে ২ যুবকের আয় চার কোটি টাকা!

Feature Image

লন্ডনের একটি পাঁচতারা হোটেলে ফুড ও ব্রেভারেজের ম্যানেজার পদে কাজ করতেন ভারতের বাসিন্দা সুজয় সোহানি। ২০১০ সালে হঠাৎই সকালে খবর আসে সেই কাজটি থেকে তাকে বরখাস্ত করা হয়েছে।
খবরটা শুনে মাথায় আকাশ ভেঙে পড়ার উপক্রম হয়েছিল সুজয়ের।

মাথা ঠাণ্ডা করে উপায় ভাবতে শুরু করেন। যোগাযোগ করেন বন্ধু সুবোধ জোশীর সঙ্গে। পরিকল্পনা করেন একটি বড়াপাওয়ের রেস্তোরাঁ খুলবেন তারা। অল্প কিছু সঞ্চয় সম্বল করেই শুরু করেন দোকান। প্রথমে রাস্তার ধারেই দোকান খুলে বসেন তারা। সেই দোকান এখন বড় রেস্তোরাঁয় পরিণত হয়েছে। একটা বা দুইটি নয় লন্ডন জুড়ে সাত সাতটি বড়াপাও রেস্তোরাঁ খুলে ফেলেছেন তাঁরা। বছরে আয় প্রায় সাড়ে চার কোটি টাকা।

ভারতের মুম্বাইয়ের ছোয়া রাখতে রেস্তোরাঁ সাজিয়েছেন বাণিজ্য নগরির একাধিক মডেল দিয়ে। যেখানে ইন্ডিয়া গেট থেকে দোতলা বাস সবই রয়েছে। সুজয় ও সুবোধ দু’‌জনেই ভারতের মহারাষ্ট্রের বাসিন্দা। সুজয় থানে আর সুবোধ ওয়াডলার বাসিন্দা।

১৯৯৯ সালের ব্যাচে মুম্বাইয়ের বান্দ্রার রাজভি কলেজে পড়তে গিয়ে আলাপ হয় তাদের। দু’‌জনেই হোটেল ম্যানেজমেন্টের কোর্স করছিলেন। সেখানে পাস করার পর স্নাতোকত্তোর হতে লন্ডনে আসেন তারা। পড়াশোনা শেষে সেখানেই কাজ করছিলেন। সেখান থেকে এই বিশাল রেস্তোরাঁর মালিক। প্রথমে মাত্র দুটো টেবিল পেতে শুরু হয়েছিল রেস্তোরাঁ। ছয় মাসের মধ্যে ব্যবসা ফুলে ফেঁপে ওঠে। এখন তাদের রেস্তোরাঁয় লাইন দিয়ে খান লন্ডনবাসী।

আরো খবর »