বৃহত্তম শরণার্থী ক্যাম্প হবে ‘বিপজ্জনক’

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

অার্ন্তজাতিক ডেস্ক: বিশ্বের সবচেয়ে বড় শরণার্থী ক্যাম্প তৈরির জন্য বাংলাদেশের পরিকল্পনাকে ‘বিপজ্জনক’ বলে মন্তব্য করেছে জাতিসংঘ।

সংস্থাটির এক শীর্ষ কর্মকর্তা বলেছেন, রাখাইন থেকে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা আট লক্ষাধিক রোহিঙ্গার জন্য বিশ্বের সবচেয়ে বড় শরণার্থী ক্যাম্প বানানোর পরিকল্পনা হবে বিপজ্জনক।

কারণ হিসেবে তিনি জানান, শরণার্থী ক্যাম্পে অতিরিক্ত ভিড়ে খুব দ্রুতই প্রাণঘাতী রোগের বিস্তার ঘটবে। কক্সবাজারের কুতুপালংয়ে এ ক্যাম্প করার পরিকল্পনা করছে রোহিঙ্গা নিয়ে ব্যাপক চাপের মধ্যে থাকা বাংলাদেশ সরকার। খবর এএফপির।

এর আগে কক্সবাজারের কুতুপালং ক্যাম্পের পাশেই আরও ২ হাজার একর জমিতে এ শরণার্থী শিবির গড়ে তোলা হয়েছিল। কিন্তু আগের ৩ লাখ রোহিঙ্গার সঙ্গে বর্তমানে যোগ হয়েছে প্রায় ৫ লাখ রোহিঙ্গা। তাই আরও ১ হাজার একর জমি নতুন আসা রোহিঙ্গাদের জন্য বরাদ্দ দেয়া হচ্ছে।

তবে ঢাকায় নিযুক্ত জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়ক রবার্ট ওয়াটকিন্স বলেন, আরও ক্যাম্প নির্মাণের জন্য বাংলাদেশের উচিত নতুন জায়গা নির্বাচন করা।

তিনি বলেন, ‘আপনি যখন এক জায়গায় বহু লোককে ঠাসাঠাসি করে রাখবেন, তাদের মধ্যে রোগপ্রবণ বহু লোকও থাকবে। ফলে এটা খুবই বিপজ্জনক হবে।’ তিনি আরও বলেন, ক্যাম্পগুলোতে প্রাণঘাতী রোগ ছড়িয়ে পড়ার জোর সম্ভাবনা রয়েছে।

যদি এমন কোনো রোগ ছড়িয়ে পড়ে, তা খুব দ্রুতই ব্যাপক আকার ধারণ করবে। ক্যাম্পগুলোতে আগুন লাগার ঝুঁকিও রয়েছে ।

ওয়াটকিন্স বলেন, আলাদা আলাদা ক্যাম্প নির্মাণ করলেই শুধু বিপুলসংখ্যক জনগোষ্ঠীর স্বাস্থ্য ও নিরাপত্তা পরিস্থিতি ভালোভাবে নিশ্চিত করা সহজ।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »