বিদেশে বাংলাদেশের তৈরি ওষুধের চাহিদা বেড়েছে

Feature Image

ঢাকা : স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম দেশের সাধারণ মানুষের কথা বিবেচনা করে ওষুধের মূল্য কমানোর জন্য ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানিগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘মধ্যম আয়ের মানুষ যাতে ওষুধের মূল্য সহজেই বহন করতে পারে, সেজন্য আমি ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানিগুলোকে ওষুধের দাম কমানোর জন্য অনুরোধ করছি।

বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত এক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম এ কথা বলেন। রাজধানীর মিরপুর সেনানিবাসে বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালস (বিইউপি) এই সেমিনারের আয়োজন করে।

নাসিম বলেন, ‘আমাদের ওষুধের গুণগতমান ভালো। তাই এখন ভারত, শ্রীলংকা, জার্মানি, যুক্তরাষ্ট্র, ফ্রান্স, ইতালি, যুক্তরাজ্য, কানাডা, নেদারল্যান্ডস ও ডেনমার্কসহ ১৪০টিরও বেশি দেশে বাংলাদেশ ওষুধ রফতানি করছে।’

তিনি বলেন, ‘একসময় দেশের প্রয়োজনে বাংলাদেশ অধিকাংশ ওষুধ আমদানি করতো। কিন্তু গত দুই দশকে এই পরিস্থিতির পরিবর্তন ঘটেছে।
সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন পপুলেশন কাউন্সিল, বাংলাদেশ-এর কান্ট্রি ডিরেক্টর ড. উবাইদুর রব। বিইউপি’র ভাইস চ্যান্সেলর মেজর জেনারেল মো. সালাউদ্দিন মিয়াজি ও ইউএনএফপিএ বাংরাদেশ-এর প্রতিনিধি লোরি কেতো অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মো. নাসিম রোহিঙ্গা সংকট প্রসঙ্গে বলেন, ‘মিয়ানমারের সরকার একটি দস্যুতা সরকার, তারা তাদের নিজেদের জনগণকে হত্যা করছে… কিন্তু শেখ হাসিনার মতো একজন সাহসী নেত্রী থাকায় আমরা গর্বিত, যিনি তার জনগণকে সঙ্গে নিয়ে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিচ্ছে।’

গত ১১ জুলাই পরিবার পরিকল্পনা ও জনগণের ক্ষমতায়ন উন্নয়নের লক্ষ্য নিয়ে সারাদেশে বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস-২০১৭ পালিত হয়। দিবসটিতে এবারের প্রতিপাদ্য ছিল: ‘পরিবার পরিকল্পনা : জনগণের ক্ষমতায়ন, জাতির উন্নয়ন।’

আরো খবর »