কালাইয়ে পুলিশী নির্যাতনে হত্যার ঘটনায় ৪ পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা

Feature Image

জেলা প্রতিনিধি, স্বাধীনবাংলা২৪.কম

জয়পুরহাট থেকে মিজানুর রহমান মিন্টু: জয়পুরহাটের কালাই উপজেলার হারুঞ্জা গ্রামে আসামী ধরতে গিয়ে আসামীকে না পেয়ে আসামীর চাচা সাইদুর রহমানকে পুলিশী নির্যাতনে মেরে ফেলার ঘটনায় ২ সাবইন্সপেক্টর সহ ৪ পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে আদালতে। বুধবার দুপুরে নিহতের পিতা কাজেম উদ্দিন বাদী হয়ে জয়পুরহাট সিনিয়র চীফ জুডিশিয়াল আদালতে এ মামলা দায়ের করেন।

মামলা সূত্রে জানাযায়, গত সোমবার ভোর রাতে হারুঞ্জা গ্রামে শাপলা হোসেন নামের এক আসামীকে পুলিশ ধরতে গেলে তাকে না পেয়ে ওই আসামীর স্বজনদের মারধর করাকে কেন্দ্র করে  আসামীর চাচা সাইদুর রহমান পুলিশী নির্যাতনে নিহত হন।

এ ব্যাপারে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বেলায়েত হোসেন বলেন, তাৎক্ষনিক ভাবে এ ঘটনায় এস আই আসাদুজ্জামান, রফিকুল ইসলাম রফিক, কন্সটেবল রাশেদুল ইসলাম ও সেলিম রেজাকে ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে সমায়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়।

এ ছাড়া ঘটনা তদন্তে তার নেতৃত্বে ৩ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ৩ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটির সদস্যরা হলেন, তিনি নিজে, সহকারি পুলিশ সুপার (হেড কোয়ার্টার) একরামুল হক ও গোয়েন্দা পুলিশ পরিদর্শক মুনিরুল ইসলাম। আগামী ৭ কর্মদিবসের মধ্যে পুলিশ সুপারের কাছে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করবেন বলেও তিনি জানান।

এদিকে সাইদুর হত্যা ঘটনায় তার বাব ঘটনার পরের দিন কালাই থানায় মামলা দায়ের করতে গেলে মামলাটি গ্রহন করতে পুলিশ অস্বীকৃতি জানায়। পরে বাধ্য হয়ে বুধবার দুপুরে সিনিয়র চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্টেট আদালতে মামলটি দায়ের করা হয়েছে বলে জানান এ মামলার বাদী ও নিহতের পিতা কাজেম উদ্দিন।

এ ব্যাপারে জয়পুরহাট জজ আদালতের সরকারী আইনজীবি  (পিপি) এ্যাডঃ নৃপেন্দ্রনাথ মান্ডল মামলা দায়েরের বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেন।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »