ভোলায় বাল্য বিবাহ নিরোধ দিবস পালিত

Feature Image

জেলা প্রতিনিধি, স্বাধীনবাংলা২৪.কম

ভোলা থেকে ইয়াছিনুল ঈমন: ভোলায় জেলা প্রশাসন, বাংলাদেশ শিশু একাডেমী ভোলা ও ভোলা জেলা এনসিটিএফ এর আয়োজনে বাল্য বিবাহ নিরোধ দিবস ২০১৭ পালিত হয়েছে।১২ অক্টোবর (বৃহস্পতিবার) সকালে বাংলাদেশ শিশু একাডেমী ভবনের সামনে দিবসটি উপলক্ষ্যে বিভিন্ন স্কুলের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহনে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে ।মানববন্ধনে অংশগ্রহন করেন মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর ভোলা, মহিলা বিষয়ক সংস্থা ভোলা, ব্রাক ভোলা।পরে মানববন্ধন শেষে শিশু একাডেমী হলরুমে দিবসটি শীর্ষক এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয় এসময় উপস্থিত ছিলেন, জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা জেবুনেছা, জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা আখতার হোসেন, ব্রাক ভোলা জেলা প্রতিনিধি আশরাফুল আলম, এনসিটিএফ ভোলার জেলা সমন্ময়কারী আদিল হোসেন তপু, এনসিটিএফ ভোলার সভাপতি ইব্রাহিম খলিল অপু, সম্পাদক শারমিন বর্ষা, যুগ্ম-সম্পাদক আশিকুর রহমান শান্ত, শিশু সাংবাদিক গোপাল চন্দ্র দে ও সানজিদা হোসেন এশা, এনসিটিএফ সদস্য ইসরাত জাহান চাঁদনী সহ অনান্য এনসিটিএফ সদস্য সহ আগত বিভিন্ন অতিথি ও বিভিন্ন স্কুলের শিক্ষার্থীরা।

এসময় বক্তারা বলেন, ১৮ বছরের আগে কোন মেয়ে এবং ২১ বছরের আগে কোন ছেলেকে বিয়ে দেওয়াকে বাল্য বিবাহ বলে। বাল্য বিয়ে একটি সামাজিক অভিশাপ। এর কোন সুফল নেই। কোন মেয়েকে বাল্য বিয়ে দেওয়ার অর্থ তার জীবন নষ্ট করে দওয়া। একটি অপূর্ন বয়স্ক মায়ের কাছ থেকে যে সন্তান জন্ম নেয় সে অপুষ্ট হয়। তার মধ্যে থাকে প্রতিবন্ধকতা।এসময় বক্তারা শিক্ষর্থীওে বলেন তাদের বা আশে পাশের কোন মেয়েকে যদি বাল্য বিয়ে দেওয়ার চেষ্টা কারা হয় তবে তার  বিরুদ্ধে রুখে দাড়াতে হবে। কারো বাল্য বিয়ে হলে সরকারী ফ্রি হেল্পলাইন ১০৯ বা ইউনিসেফের হেল্পলাইন ১০৯৮ এ কল করে তথ্য প্রদান করলে ঐ বাল্য বিয়ে প্রশাসন বন্ধ করবে।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »