কুষ্টিয়ায় হত্যা মামলার আসামি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

Feature Image

জেলা প্রতিনিধি, স্বাধীনবাংলা২৪.কম

কুষ্টিয়া: কুষ্টিয়ায় ডিবি পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ শাহিন নামের এক যুবক নিহত হয়েছেন। শুক্রবার ভোর রাত ৩টার দিকে উপজেলার শিলাইদহ কসবা ঘাটে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

পুলিশের দাবি, নিহত শাহিন কুমারখালীর প্রবাসী যুবক রাকিবুল ইসলাম হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত আসামি। এ ঘটনায় পুলিশের চার সদস্যও আহত হয়েছে বলেও জানায় পুলিশ।

নিহত শাহীন সদর উপজেলার নুরপুর গ্রামের মতিয়ার রহমানের ছেলে। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ একটি বিদেশি পিস্তল, চার রাউন্ড গুলি ও হাসুয়া উদ্ধার করেছে।

জেলা ডিবি পুলিশের ওসি ছাব্বিরুল ইসলাম জানান, শাহিনকে নিয়ে মামলার অন্য আসামিদের ধরতে শিলাইদহ কসবা ঘাটে রাতে অভিযানে যায় গোয়েন্দা পুলিশ। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে সন্ত্রাসীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি করে। পুলিশও পাল্টা জবাব দিলে উভয়ের মধ্যে বেশ কিছুক্ষণ বন্দুকযুদ্ধ চলে।

এসময় শাহিন পুলিশ হেফাজত থেকে পালাতে গিয়ে ক্রসফায়ারে পরে আহত হন। পরে তাকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

পুলিশ আরও জানায়, তিনি কুমারখালীর মালয়েশিয়া প্রবাসী রাকিবুলকে হত্যা করতে তার বউ ও ভাইয়ের কাছ থেকে নগদ ৫০ হাজার টাকা নিয়েছিলেন।

স্ত্রী ও ছোট ভাইয়ের পরকীয়ার সম্পর্কের জের ধরে গত ৫ অক্টোবর ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীরা রাকিবুলকে হত্যা করে স্থানীয় কালীগঙ্গা নদীতে ফেলে দেয়। হত্যার তিনদিন পর রোববার লাশটি নদী থেকে পুলিশ উদ্ধার করে।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »