খোকসায় খোদ্দসাদুয়া গ্রামে সাপের ঝাপই অনুষ্ঠিত হল

Feature Image

বেহুলা লক্ষন দ্বারের অনেক গল্প শুনেছি অনেক আগেই। সাপ সাপুড়ের আর নাগ নাগীনীর ঝাপই এখন আর দেখা যায় না।
মানুষের মনে সেই যৌলস আর নাই। যান্ত্রীক যুগে সাপের ঝাপই আর সাপ সপুড়ের নাচের তালের নাচ দেখা মেলা ভার।

কু্ষ্টিয়া খোকসা খোদ্দসাদুয়া পশ্চিমপাড়া গফুর সাপুড়িয়ার বাড়ির উপর খোদ্দসাদুয়া যুবসমাজের আয়োজনে সর্পরাজ আজাদ সাপুড়িয়ার পরিচালনায় গ্রামের হাজারও নর নারীর মিলন মেলায় পরিনত হয়েছিল খোদ্দসাদুয়া গ্রাম।

সাপে কাটিলরে , সাপে গরিলরে সাপ ধরিতে আব্দুল আলিম রওনা হইলরে।
এমন নানান গ্রামীন সাপের ঝাপই গানে মুখরিত হয়ে ওঠে সাপের ঝাপই খোদ্দসাদুয়া গ্রাম।
খোদ্দসাদুয়া গ্রামের ৭নং ওয়াডের মেম্বর লালন শেখ এর সভাপতিত্বে গোফুগ্রাম ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ আলমগির হোসেন ও শোমসপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ বদর উদ্দিন খান, ৮ নং ওয়াডের মেম্বর রাজ্জাক ও স্থানিয় গন্যমান্য ব্যক্তিগণ উক্ত সাপের ঝাপই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

সাপের ঝাপই অনুষ্ঠানে আশপাশের ৬ জেলা থেকে প্রায় ১০ জন সনাম ধন্য প্রসিদ্ধ সাপুড়িয়াগণ সাপের ঝাপইয়ে অংশ গ্রহন করেরে।
এদের মধ্যে রাজবাড়ি জেলা থেকে আছিয়া সাপুড়িয়া,শৌলকুপা ঝিনাইদহ থেকে সছিন সাপুড়িয়া, ফরিদপুর থেকে আফছার সাপুড়িয়া, মাগুরা থেকে আহাম্মদ সাপুড়িয়া প্রমুখও। সাপুড়িয়াগণ তাদের বিষধর সাপের মঞ্চে ছেড়ে সাপের নৈপুণ্য প্রদর্শন করে নয়ন জোড়ায়ে দেন দর্শকদের।

প্রায় ১০ গ্রামের নারী পুররুষ সাপের ঝাপই দেখার জন্য ছুটে আসে। আয়োজক কমিটি সুন্দর ভাবে অনুষ্ঠান পরিরিচালনা করতে সকল কে ধন্যবাদ জানায়।

আরো খবর »