ভূতের ভয়ে পুরুষশূন্য গ্রাম!

Feature Image

গ্রামের নাম কাসিগুদা। অধিকাংশের পেশা পাথর কাটা এবং ভাঙা। কিন্তু অজানা এক অশরীরী আতঙ্কে এখন পুরুষশূন্য পুরো গ্রাম। কেউ কেউ গ্রামে থাকলেও সূর্য ডোবার আগেই ঘরে ফেরে আর সূর্য উঠলে ঘর থেকে বের হন। তবে গ্রামের নারীরা দিব্যি ঘুরে বেড়াচ্ছেন। আর এমনই অবস্থা ভারতের তেলঙ্গানার নির্মল জেলার ওই গ্রামের মানুষের।

ভারতীয় গণমাধ্যমে খবর, ওই গ্রামে মোট ৬০টি পরিবারের বাস। তবে এখন গ্রামের অধিকাংশ বাড়িতেই তালা ঝুলছে। ভূত না তাড়ানো পর্যন্ত কেউই আর গ্রামে আসবে না বলে জানিয়েছে। ছোট্ট গ্রাম, যার চারিপাশ সবুজ ঘেরা, সেটা বর্তমানে এক ভুতূরে গ্রামে পরিণত হয়েছে।

তবে তেলঙ্গানার বিভিন্ন গ্রামে এর আগেও ভূতের আতঙ্ক তৈরি হয়েছে।
তবে সাম্প্রতিককালে এই প্রথম অশরীরী আতঙ্কে গ্রামের এতজন মানুষ নিজের জায়গা ছেড়ে পালিয়েছে। গ্রামবাসীদের ধারণা পুরুষদের নিশানা করছে কোনো নারী ভূতই। ঘটনায় তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে প্রশাসন।

আরো খবর »