কুষ্টিয়ায় আন্তঃজেলা ডাকাত দলের ৪ সদস্য আটক, অস্ত্রগুলি ও বোমা উদ্ধার

Feature Image

কু্ষ্টিয়া:  কুষ্টিয়ার সদর উপজেলার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের বৈদ্যানথপুরে ডাকাতীর প্রস্তুতিকালে পুলিশের অভিযানে ৪ ডাকাত আটককে আটক করেছে পুলিশ। এ সময় একটি দেশীয় বন্দুক, একটি দেশীয় পাইপগান, একটি শার্টারগান, ৫ রাউন্ডগুলি, বোমা ও হাসুয়া উদ্ধার করে পুলিশ।

আটকৃত ডাকাত দলের সদস্যরা হলো-কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার রাজনগর গ্রামের মেজবাউলের ছেলে আক্তারুল ইসলাম(২৯), একই এলাকার কাকিলাদহ গ্রামের সোহরাব গিরির ছেলে হাসনাত গিরি (২১), মেহেরপুরের গাংনীর ভোলাডাঙ্গা গ্রামের ইব্রাহিমের ছেলে রাজ শেখ (২৭) ও কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে খালিশাকুন্ডি গ্রামের গমার ছেলে আশিকুর রহমান আশিক(২০)।

 

পুলিশ জানায়, আজ ভোরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে একদল ডাকাত দল অস্ত্র বহন করে ঝাউদিয়াসহ ওই এলাকার বিভিন্ন দোকান ডাকাতীর প্রস্তুতি নিচ্ছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (মিরপুর সার্কেল) নুর-ই আলম সিদ্দিকীর নেতৃত্বে একটি অভিযানিক দল চারদিক থেকে ঘেরাও করে আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সক্রিয় সদস্য আক্তারুল ইসলাম, হাসনাত গিরি, রাজ শেখ ও আশিকুর রহমান আশিককে আটক করে। পরে তাদের কাছ থেকে একটি দেশীয় বন্দুক, দেশীয় পাইপগান, শার্টারগান, ৫ রাউন্ডগুলি, ২ বোমা ও ২টি হাসুয়া উদ্ধার করে।

কুষ্টিয়া গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) এসআই মোঃ মনিরুল ইসলাম বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। পরে তাদের আদালতে প্রেরণ করা হয়। আমাদের প্রতিবেদক বাদশা আলমগীর জানান, কুষ্টিয়া সদর উপজেলার ইবি থানার ঝাউদিয়া বৈদ্যনাথপুর গ্রামে গত শনিবার রাত সাড়ে ১১টায় অভিযান চালিয়ে ইবি থানা পুলিশ ৪জনকে আটক করে। আটককৃতদের কাছে থেকে একটি এক নলা বন্দুক, একটি পাইপ গান ও একটি সাটার গান, বন্দুকের ৫ রাউন্ড তাজা গুলি, ২টি ককটেল বোমা সহ ২টি হাসুয়া উদ্ধার করে। আটককৃতরা হলো আখতারুল ইসলাম(২৯), রাজ শেখ(২৭), আশিকুর রহমান(২৫) ও হাসনাত গিরি(২১)।

ইবি থানার অফিসার ইনচার্জ রতন শেখ জানান, গতকাল রাত সাড়ে ১১টায় বৈদ্যনাথপুর মধ্যপাড়া ঈদগাহ মাঠে বসে ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছে। জানতে পেরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ইবি থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে মিরপুর উপজেলার রাজনগর গ্রামের মেজবাউল হকের ছেলে আক্তারুল ইসলাম(২৯), গাংনী উপজেলার ভোলাডাঙ্গা গ্রামের ইব্রাহিম শেখের ছেলে রাজ শেখ(২৭), মিরপুর উপজেলার কাকিলাদাহ গ্রামের সোহরাব গিরির ছেলে হাসনাথ গিরি(২১) ও দৌলতপুর উপজেলার খলিশাকুন্ডি পাইকপারা গ্রামের গামার ছ্বেলে আশিক(২৫) কে আটক করে শরীর ও হাতে থাকা ব্যাগ তল্লাশি করে পুলিশ ১ নলা একটি বন্দুক, ১টি পাইপ গান, ১টি শাটার গান, ২টি ককটেল, ৫ রাউন্ড বন্দুকের তাজা গুলি ও ২টি হাসুয়া উদ্ধার করে। অপর আসামী মিরপুর উপজেলার হালসা গ্রামের খেদ আলীর ছেলে বোরহান(৩০) পালিয়ে যায়। এব্যাপারে ইবি থানায় অস্ত্র ও বোমা বিস্ফোরণ আইনে পৃথক পৃথক দুইটি মামলা হয়েছে।

আরো খবর »