স্ত্রীর ভয়ে ১০ বছর জঙ্গলে কাটিয়ে দিলেন স্বামী!

Feature Image

উত্তম স্ত্রী যার সমস্ত সুখ তার। স্ত্রীর প্রতি একে অপরের ভালোবাসা বোঝাপড়া জগৎকে আরও রঙ্গিন করে তোলা যায়
তাইতো বিখ্যাত সম্রাট জাহাঙ্গীর তার স্ত্রীকে নিয়ে গড়েছেন স্বপ্নে তাজমহল। তাজমহলের পাথর দেখেছ, দেখেছ কি তার প্রাণ, অন্তরে তার মমতাজ নারী বাহিরেতে শাহজাহান। জগৎ জুড়ে কত যে আজিব ঘটনা ঘটে চলেছে তার শেষ নেই। এমনই এক আশ্চর্য ঘটনার জন্ম দিয়েছেন আমেরিকার নাগরিক।

তিনি এক বছর, দুই বছর নয় বউয়ের জ্বালা আর যন্ত্রণায় অতিষ্ট হয়ে পালিয়ে ১০ বছর জঙ্গলে কাটিয়েছেন! স্বামী আর স্ত্রীর সম্পর্ক যদি ভালো হয় তাহলেতো কথাই নেই। কিন্তু যদি খারাপ হয় তাহলে ওই সম্পর্কে দুঃখ ছাড়া আর কিছুই থাকে না। কিন্তু তাই বলে স্ত্রীর কাছ থেকে পালিয়ে যেয়ে ১০ বছর জঙ্গলে কাটিয়ে দেওয়া। এমনটা এর আগে হয়তো কেউ শুনেননি।

যুক্তরাজ্যের এক ব্যক্তি বিয়ে করলেন
আর বিয়ের পরই তার জীবন নাকি তার স্ত্রী নাজেহাল করে ছাড়েন। ম্যালকম অ্যাপলগেট নামে ওই ব্যক্তি বউয়ের জ্বালায় শেষ পর্যন্ত জঙ্গলে পালিয়ে যান কাউকে কিছু না বলে। আর সেখানেই কাটিয়ে দেন পুরো ১০টি বছর।

ম্যালকমের বয়স এখন ৬২। তিনি পেশায় একজন মালি। সম্প্রতি তিনি তার জীবনের কাহিনীটি লন্ডনের ‘ইমাউস গ্রিনউইচ’ নামে এক সংস্থাকে জানিয়েছেন। এই সংস্থার কাজ, যারা বাস্তুহীন তাদের সংস্থাটি আশ্রয় দিয়ে থাকে।

১০ বছর যাবৎ ম্যালকমকে না পেয়ে তার পরিবারের সদস্যারা ধরেই নিয়েছিল সে আর এই পৃথিবীতে নেই। কিন্তু হঠাৎ ১০ বছর পরে ম্যালকম তার বোনকে ফোন করে বসেন। আর বোন ফোন পেয়ে বিশ্বাসই করতে পারছিল না যে তার ভাইয়ের সাথে এত বছর পর সে কথা বলতে পারছে।

ম্যালকম জানান, বিয়ের পর তার স্ত্রী চাইতেন না সে বাসার বাইরে থাকুক। বেশি কাজ করলেও তার স্ত্রী রেগে যেত। আর তার আমার উপর প্রভাব দিন দিন বেড়েই চলছিল।

আরো খবর »