শরৎ ঋতুর পরন্ত বিকেলে ডোবায় সৌখিন মৎস্য শিকারী

Feature Image

হুমায়ুন কবিরঃ  হাওড়-বাওড় খাল বিল আর নদী নালায় বাংলা বৈচিত্রময় গ্রামীন পরিবেশে হাজারো লোকালয়ের বসবাস। জীবনধারনে মানুষের জিবিকার তাগিদে বিভিন্ন পেশায় নিয়োজিত থাকে গ্রামের ঐসকল খেটে খাওয়া মানুষ গুলো। ঋতু বৈচিত্রের পরিক্রমায় গ্রামীণ পরিবেশে মানুষের জীবন জীবিকাও পরিবর্তন হয়।

 

শরৎ ঋতুর পরেই আসে হেমন্ত। খাল বিল নদী নালা হাওড় বাওড় এর পানি কমতে থাকে। কোথাওবা শুকিয়ে যায় পুকুরের পানিও। মিঠা পানির মাছ শিকারে ব্যাপক তৎপরতা হয়ে পরে মৌসুমী মৎস্য শিকারী বা সৌখিন মাছ শিকারীরা। কেউবা হাতে নেয় পলো, গোয়ারী, চারো, হাতজাল (ক্ষেপলা জাল) অগত্যা বরশি দিয়ে মাছ শিকারে ব্যাস্ত হয়ে পড়ে অলস মাছ শিকারীগণ।

 

হেমন্তের পরন্ত বিকেলে খাল-নদী বা ডোবা নালার পাশে এমন মৎস্য শিকারী অহরহ চোখে পড়ে গ্রামীন খোলা মেঠো পথে। শহরের কোলাহল থেকে বেড়িয়ে মা-বাবার চোখের শাসন আর বারন না মেনে যৌবনা দুষ্টু কজন ব্যক্তি একত্র হয়ে এভাবেই মাছ শিকারে ব্যস্ত আছে।

আরো খবর »