নিজস্ব প্রযুক্তিতে মিসাইল বোট বানাল ইরান

Feature Image

পরমাণু ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করেই নিজেদের সামরিক শক্তিকে আরও শক্তিশালী করে চলেছে ইরান। আর তারই জের ধরে এবার দেশটির ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসি ঘণ্টায় ১১০ নটিক্যাল বা ২০৩ কিলোমিটার বেগে ছুটতে সক্ষম স্পিডবোটের পরীক্ষা চালিয়েছে।

এ ব্যাপারে আইআরজিসি’র নৌ-কমান্ডার রিয়ার অ্যাডমিরাল আলি ফাদাভি জানান, নিজস্ব প্রযুক্তিতে এই দ্রুতগতির স্পিডবোট তৈরি করা হয়েছে। তিনি আরও জানান, এর আগে যুদ্ধজাহাজ বিধ্বংসী ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র এবং কামান স্পিডবোটে বসানো সম্ভব ছিল না। তবে এবার তা সম্ভব হয়েছে। ইরানি বিশেষজ্ঞরা নতুন স্পিডবোটে এই দুই ব্যবস্থাই রেখেছেন বলে তিনি সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।

এছাড়া, ঘণ্টায় ১২০ নটিক্যাল বা ২২২ কিলোমিটার বেগে চলতে সক্ষম সামরিক যানের পরীক্ষা এবং নকশা রুপায়ণের কাজও এখন আইআরজিসি’র নৌ গবেষণাগারেই করা হচ্ছে। আগে এ ধরনের পরীক্ষা বাইরে থেকে ইরানকে করিয়ে আনতে হত।

অন্যদিকে, আগামী কয়েক মাসের মধ্যেই ইরান ঘণ্টায় ৮০ নট বা ১৪৮ কিলোমিটার বেগে স্পিডবোট বানাবে। ওই স্পিডবোটগুলোতে ১০০ কিলোমিটারের মধ্যে অবস্থিত শত্রুপক্ষের লক্ষ্যবস্তু ধ্বংসের উপযোগী ক্ষেপণাস্ত্র বসানো হবে বলেও জানিয়েছেন এই নৌ-কমান্ডার।

আরো খবর »