‘হায়রে কপাল মন্দ, চোখ থাকিতে অন্ধ’

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

শেরপুর: রোহিঙ্গাদের ব্যাপারে কিছু এগোচ্ছে না বলে যাঁরা অভিযোগ করেন, তাঁদের সমালোচনা করেছেন কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী। তিনি বলেন, ‘অনেকে বলেন, কই, কিছু তো এগোচ্ছে না। তাদের বলব, হায়রে কপাল মন্দ, চোখ থাকিতে অন্ধ।’

শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলার সন্ন্যাসীভিটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে শিক্ষার্থীদের মধ্যে সৌরবাতি বিতরণের সময় দেওয়া সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সেলর অং সান সু চি বলেছেন যে যারা সত্যিকারের রোহিঙ্গা, তাদের ফেরত নেবেন। এ কথা উল্লেখ করে মতিয়া চৌধুরী বলেন, ‘এর আগে তো “হ্যাঁ” শব্দটাও বলেননি। উল্টো বলেছিলেন, তাঁরা এ দেশের নাগরিকই না। তাঁদের আমরা নেব না। এখন তাঁরা বলতে বাধ্য হচ্ছেন। কারণ আন্তর্জাতিক কূটনীতিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সফলভাবে এগিয়ে যাচ্ছেন।’

মুক্তিযুদ্ধের সময়ের কথা উল্লেখ করে কৃষিমন্ত্রী বলেন, আমরাও একটা দেশে আশ্রয় নিয়ে ছিলাম। তাই রোহিঙ্গা যখন আমাদের কাছে আশ্রয় নিতে এসেছিল, তখন আমরা তাদের ফিরিয়ে দিতে পারি নাই। আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনা কীভাবে রোহিঙ্গাদের বুকে টেনে নিয়েছেন, তা আপনারা দেখেছেন।

১৯৭৮ সাল থেকে রোহিঙ্গারা এলেও জিয়াউর রহমান, খালেদা জিয়া, এরশাদ সাহেব কিছুই করেননি বলে অভিযোগ করেন কৃষিমন্ত্রী। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাই বিষয়টি আন্তর্জাতিকভাবে তুলে এনেছেন বলে মন্তব্য তাঁর।

উপজেলার নয়টি ইউনিয়নের ২৫২টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের দুই হাজার ৫৬০ শিক্ষার্থী, ১৮০ জন পিয়ন ও আয়া, ৩৭৭ জন ইমাম, ৩৫১ জন মুয়াজ্জিন, আটজন ধাত্রী, ৪৪ জন সেবায়েত ও পুরোহিতের মধ্যে তিন হাজার ৪৪৮টি সৌরবাতি বিতরণ করেন মন্ত্রী।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »