সাহসী অপু বিশ্বাস

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

বিনোদন প্রতিবেদক: বাংলা চলচ্চিত্রের একজন নামকরা পরিচালক বদিউল আলম খোকন। শুধু তাই নয়, তিনি বাংলাদেশ পরিচালক সমিতিও মহাসচিবও। সেই খোকনের প্রস্তাবেই কিনা মুখের ওপরে পরিস্কার না বলে দিলেন হালের জনপ্রিয় ও আলোচিত নায়িকা অপু বিশ্বাস!

গত এক দশকেরও বেশি সময় ধরে নিজের অভিনয় শৈলি দেখিয়ে যাচ্ছেন নায়িকা। খোদ পরিচালক সমিতির মহাসচিবকে মুখের ওপর না করে দিয়ে এবার দেখালেন তার সাহসের নমুনা।

সম্প্রতি ‘কাঙাল’ নামের একটি ছবির কাজ হাতে নিয়েছেন পরিচালক বদিউল আলম খোকন। ছবির জন্য নায়কও চূড়ান্ত করে ফেলেছেন তিনি। শোনা যাচ্ছে, ছোট পর্দার অভিনেতা ডিএ তায়েবকে ছবিতে নায়ক হিসেবে দেখা যাবে। এর পরই তিনি নেমে পড়েন নায়িকার সন্ধানে। অনেক খুঁজে দীর্ঘদিন অভিনয়ের বাইরে থাকা অপু বিশ্বাসকেই মনে ধরে পরিচালকের।

সেই মত অপুকে অভিনয়ের জন্য প্রস্তাবও দেন খোকন। কিন্তু সেই প্রস্তাবে সরাসরি না বলে দিয়েছেন নায়িকা। অপু বলেন, ‘কাঙাল’ প্রসঙ্গে যে আমি কিছুই জানি না তা কিন্তু নয়। ছবিটিতে আমাকে অভিনয়ের প্রস্তাব দেয়া হয়েছিল। আমি সায় দিইনি। কারণ আমি মনে করি, ছবির জন্য এখনও সম্পূর্ণ প্রস্তুত নই। তাই এখনও নিজেকে ফিট রাখার মিশনেই আছি। পুরোপুরি তৈরি না হয়ে নতুন ছবিতে কাজ করব না।’

তবে অপু যা-ই বলুক। তার এই ‘না’ কে ঘিরে চলছে একটাই গুঞ্জন। সেই গুঞ্জনটা হচ্ছে ছবির হিরো ডিএ তায়েব। ছবি এবং পরিচালক পছন্দ হলেও নায়ক পছন্দ হয়নি অপুর- এমনটাই ধারণা সিনে মহলের একাংশের। এর আগে কখনোই ডিএ তায়েবের বিপরীতে অভিনয় করেননি অপু।

গেল ঈদে মুক্তি পায় ডিএ তায়েবের ছবি ‘সোনাবন্ধু’। যেখানে তার নায়িকা ছিলেন পপি ও পরীমনি। বক্স অফিসে মুখ থুবড়ে পড়ে রীতিমত ফ্লপের খাতায় নাম ওঠে ছবিটির। ছবিটি দেখার পর হল থেকে বেরিয়ে ওই সময় অনেক দর্শককই নায়কের দিকে আঙুল তুলেছেন। বলেছিলেন, ‘ছবির গল্প এবং নায়িকা ঠিক ছিল, কিন্তু নায়কই ডুবিয়েছে ছবিটাকে।’

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »