টাকা ফেরত পাওয়ার দাবীতে গ্রাহকদের মানববন্ধন

Feature Image

মঠবাড়িয়ায় সোনালী উন্নয়ন ফাউন্ডেশনের আত্মসাৎকৃত টাকা ফেরত পাওয়ার দাবীতে গ্রাহকদের মানববন্ধন
মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) থেকে এস.এম. আকাশ : পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় সোনালী উন্নয়ন ফাউন্ডেশন নামে একটি বে-সরকারী অর্থলগ্নী প্রতিষ্ঠান স্থানীয় কয়েক হাজার গ্রাহকের জমাকৃত অর্থ ফেরত পাওয়ার দাবীতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন ভুক্তভোগী গ্রাহকরা। সোমবার সকালে সচেতন নাগরিক সমাজের উদ্যোগে শহীদ মিনার সম্মূখ সড়কে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে ভুক্তভোগী প্রতারিত নারী পুরুষ ও বিভিন্ন শ্রেণী পেশার তিন সহস্রাধিক মানুষ অংশগ্রহণ করেন।

সচেতন নাগরিক সংগঠনের আহŸায়ক ও উপজেলা আ’লীগ সহ-সভাপতি আরিফ-উল-হক এর সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, জেলা পরিষদ সদস্য ও অধ্যক্ষ আজীম-উল-হক, মঠবাড়িয়া প্রেস ক্লাবের সভাপতি আবদুস সালাম আজাদী, সাধারণ সম্পাদক জিল্লুর রহমান, এনজিও কর্মকর্তা ইসরাত জাহান মমতাজ, উপজেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদ জুলহাস শাহীন, সাংবাদিক সিদ্দিকুর রহমান, রিপোর্টার্স ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক কামরুল আকন, সাংবাদিক ইসমাইল হোসেন হাওলাদার, উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আরিফুর রহমান সিফাত, পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি শরীফুল ইসলাম রাজু প্রমূখ।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, সোনালী উন্নয়ন ফাউন্ডেশন (এনজিও) মাইক্রোক্রেডিটের লাইসেন্স নিয়ে ক্ষুদ্র ঋণ, ডিপিএসর সঞ্চয়ের নামে গত ২০০০ সাল থেকে মঠবাড়িয়ায় ৭টি শাখার মাধ্যমে শত শত সমিতি গঠন করে। পরে ওই এনজিও মোটা অংকের মুনফার লোভ দেখিয়ে সাত হাজার গ্রাহকের কাছ থেকে প্রায় সাড়ে সাত কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে বলে অভিযোগ করে।

বক্তারা আরও বলেন, এনজিওটি গ্রাহকদের মুনাফা দেয়া তো দুরের কথা জমাকৃত সমুদয় অর্থই ফেরত না দিয়ে সংস্থার কার্যক্রম মঠবাড়িয়া হতে গুটিয়ে নেয়। বক্তারা আগামী সাত দিনের মধ্যে গ্রাহকের টাকা ফেরত না দিলে কঠোর আন্দোলন হুশিয়ারী দেন।

এ ব্যাপারে ওই সংস্থার চেয়ারম্যান শামসুদ্দিন আজাদ মুঠোফোনে জানান, কতিপয় শাখা ব্যাবস্থাপকদের অনিয়ম ও নীতিমালা না মানায় সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে। তার পরেও সংস্থার নিজস্ব সম্পত্তি বিক্রি করে ক্ষতিগ্রস্থ গ্রহকদের টাকা অচীরেই ফেরত দেয়া হবে।

আরো খবর »