জর্ডানের রানীর ফেসবুক-টুইটারে বিপন্ন রোহিঙ্গাদের করুন চিত্র

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

অার্ন্তজাতিক ডেস্ক: জাতিগত নিধনের মুখে মিয়ানমার থেকে পালিয়ে বাংলাদেশে আসা বিপন্ন রোহিঙ্গাদের করুন কথা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম- টুইটার, ফেসবুক, ইন্সটাগ্রাম ও ওয়েবসাইটে তুলে ধরেছেন জর্ডানের রানী রানিয়া আল আবদুল্লাহ।

টুইটারে দেয়া এক পোস্টে রানি লিখেছেন, ‘বিপন্ন এই মুসলিম সংখ্যালঘু সম্প্রদায়কে কেন বারবার উপেক্ষা করা হচ্ছে? কেন এই কাঠামোগত নিপীড়ন চলতে দেয়া হচ্ছে?’

আরেক পোস্টে তিনি বলেছেন, ‘কুতুপালং শরণার্থী শিবিরে যে ভোগান্তি আমি দেখেছি এবং রোহিঙ্গা শরণার্থীদের কাছ থেকে যে দুর্ভোগের কথা শুনেছি- তা চরম যন্ত্রণাদায়ক ও মর্মান্তিক।’

টুইটারে দেয়া আরেক পোস্টে রানী লিখেছেন, ‘গত দুই মাসে প্রায় ৬ লাখ রোহিঙ্গা মুসলিম মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে পালিয়ে গেছেন। বছরের পর বছর ধরে তারা বৈষম্য, অবিচার ও নিপীড়নের শিকার হয়ে আসছেন।

দুর্ভাগ্যজনকভাবে পুরো দুনিয়ার সামনে একটি ধর্মীয় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ওপর এ ধরনের পদ্ধতিগত নিপীড়ন চলছে। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে অবশ্যই রোহিঙ্গাদের দুর্দশার অবসান ঘটাতে হবে। তাদের অধিকার রক্ষা করতে হবে।’

টুইটার ছাড়াও নিজের ফেসবুক, ইন্সটাগ্রাম এবং ওয়েবসাইটেও বর্বর নির্যাতনের শিকার রোহিঙ্গাদের নিয়ে একই ধরনের বক্তব্য তুলে ধরেন তিনি।

উল্লেখ্য, সোমবার রানী রানিয়া আবদুল্লাহ জর্ডান থেকে বিশেষ বিমানে ঢাকা হয়ে কক্সবাজারের আসেন। সেখানে তিনি উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করে তাদের দুর্দশার কথা শোনেন।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »