বাগাতিপাড়ায় পাকা সড়ক ভেঙ্গে মিশলো বড়াল নদীতে

Feature Image

উপজেলা প্রতিনিধি, স্বাধীনবাংলা২৪.কম

লালপুর (নাটোর) থেকে মাজহারুল ইসলাম: পানি নিস্কাশনের ব্যবস্থা না থাকায় বৃষ্টির পানির চাপে নাটোরের বাগাতিপাড়া উপজেলার চকগোয়াশ-দিয়াড় পাকা সড়কের চকতকিনগর এলাকায় সড়কের একটি অংশ ভেঙ্গে পার্শবর্তী বড়াল নদী গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। ফলে আশে-পাশের সাত গ্রামের প্রায় দশ হাজার মানুষের চলাচলের ব্যবস্থা বিছিন্ন হয়ে পড়ায় দুর্ভোগের সৃষ্টি হয়েছে।

চকগোয়াশ ও এর পার্শবর্তী তিন গ্রামের জমে থাকা বৃষ্টির পানি নিস্কাশনের ব্যবস্থা না থাকায় রাস্তাটি ভেঙ্গে পড়েছে বলে অভিযোগ করেন এলাকাবাসী ।

চকতকিনগর গ্রামের নাজমুল হোসেন জানান, গোয়াশ, চকগোয়াশ ও চকতকিনগর এই তিন গ্রামের বৃষ্টির পানি জমে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়। ওই তিন গ্রামের জমে থাকা পানি একমাত্র ছোট চোঙের মাধ্যমে চকতকিনগর গ্রামের মধ্য দিয়ে কোন মতে বড়াল নদীতে এসে পড়তো । কিন্তু কিছুদিন পুর্বে মাটি জমে সেই চোঙটিও বন্ধ হয়ে যায়। ফলে প্রায় মাস খানেক পুর্বে বৃষ্টি চলাকালে চোঙটিসহ রাস্তাটির কিছু অংশ ধ্বসে বড়াল নদীতে গিয়ে পড়ে। সেসময় মেরামতের কোন ব্যবস্থা না নেওয়ায় সম্প্রতি দুই দিনের টানা বৃষ্টিতে রাস্তাটির ওই ভাঙ্গা অংশের পুরোটায় নদী গর্ভে চলে গেছে। ফলে তমালতলা বাজারের সঙ্গে গোয়াশ, চক গোয়াশ, চকতকিনগর, একডালা, দিয়াড়, তকিনগর, আস্তিকপাড়াসহ সাত গ্রামের মানুষের চলাচলের যোগাযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। তকিনগর আইডিয়াল হাইস্কুল এন্ড কলেজের ব্যবস্থাপনা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক কুন্তলা সরকার জানান, ওই পথ দিয়ে তিনি নিয়মিত যাতায়াত করেন। তাছাড়াও  ওই পথে চক গোয়াশ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, একডালা উচ্চ বিদ্যালয়, তকিনগর আইডিয়াল হাইস্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা যাতায়াত করে। রাস্তাটি ভেঙ্গে পড়ায় শিক্ষার্থী সহ সকলকে এখন কয়েক কিলোমিটার পথ ঘুরে কর্মস্থলে যেতে হচ্ছে।

এ ব্যাপারে উপজেলা প্রকৌশলী এএসএম শরীফ উদ্দিন বলেন, বৃষ্টি শেষ হলে জরুরী বরাদ্দ থেকে রাস্তাটি মেরামতের ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »