ইবিতে দলীয় নেতাকে পেটাল ছাত্রলীগ

Feature Image

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এ আর রাশেদঃ  ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা দলীয় এক নেতাকে মারধর করেছে বলে জানা গেছে। ওই ছাত্রলীগ নেতার নাম মেহেদী হাসান সুমন। সে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদ ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এবং ফিন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগের ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী।

বুধবার দুপুর দেড় টার দিকে কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জুয়েল রানা হালিম গ্রæপের কর্মীরা তাকে মারধর করে বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়।
প্রত্যক্ষদর্শী ও দলীয় সূত্রে জানা যায়, গত কমিটিতে অভ্যন্তরীন বিষয় নিয়ে তৎকালীন ছাত্রলীগের সহসভাপতি ও বর্তমান কমিটির সাধারণ সম্পাদক জুয়েল রানা হালিমের অনুসারীদের সাথে দ্বন্দ হয় সুমনের।

এরই জের ধরে বুধবার হালিম গ্রæপের কর্মী তুষার, বিপুল, আবির, হামিদুলসহ ৬-৭ জন মেহেদী হাসান সুমনকে খুঁজতে থাকে। এক পর্যায়ে বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে সমুনকে পেয়ে তারা তার উপর হামলা করে। এসময় তারা সুমনকে কিলঘুষি, লাথি মারতে থাকলে সে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। পরে ছাত্রলীগ কর্মীরা সেখান থেকে কেটে পড়ে।
তবে ছাত্রলীগ কর্মীদের দাবি সুমন ক্যাম্পাস প¦ার্শবর্তী শেখপাড়া নিয়ে কটুক্তি করায় আমরা তার সাথে কথা বলেছি মাত্র।

এ বিষয়ে মেহেদী হাসান সুমন বলেন, ‘আমি ছাত্রলীগের সভাপতির সাথে রাজনীতি করায় সাধারণ সম্পাদকের অনুসারীরা প্রতিহিংসা করে আমাকে মারধর করে। তবে আরো একটা বিষয়ে তারা অভিযোগ করেছে আমি নাকি শেখপাড়া নিয়ে কটুক্তি করেছি।’

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি শাহিনুর রহমান বলেন, ‘এটা দলীয় কোন বিষয় না। তারা জেলা কল্যাণ সমিতি নিয়ে কথা কাটাকাটি করে বলে আমি শুনেছি। তবে ইতিমধ্যে তারা নিজেদের মধ্যে মিমাংশা করে নিয়েছে।’

আরো খবর »