আমি খুবই ভোজনরসিক

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

বিনোদন প্রতিবেদক: পূর্ণিমার ফেসবুক আর ইনস্টাগ্রামে প্রায়ই বিভিন্ন খাবারের স্থিরচিত্র দেখা যায়। খাবারের প্রতি ভালো লাগা আর ভালোবাসা থেকে এসব স্থিরচিত্র প্রকাশ করেন এই চিত্রনায়িকা। ভোজনরসিক এই নায়িকা রান্নাবিষয়ক রিয়ালিটি শোর বিচারক হলেন। আগামী বছর ১২ জানুয়ারি থেকে এ অনুষ্ঠানের দৃশ্যধারণ শুরু হবে। ‘সেরা রাঁধুনি ১৪২৪’ নামের এই অনুষ্ঠান প্রচারিত হবে মাছরাঙা টেলিভিশনে। এ অনুষ্ঠানের অন্য দুজন বিচারক হলেন নাহিদ ওসমান ও শুভব্রত মৈত্র।

পূর্ণিমা বলেন, ‘আমি খুবই ভোজনরসিক। টেলিভিশন চ্যানেলে রান্নাবিষয়ক অনুষ্ঠান দেখে নিত্যনতুন রেসিপির সঙ্গে পরিচিত হই। আবার তা নিজে রান্নার চেষ্টাও করি। আমরা যাঁরা সেলিব্রিটি, তাঁদের সব সময় নাচ, গান, অভিনয়ের অনুষ্ঠানের জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়। রান্নার অনুষ্ঠানে সেই অর্থে প্রস্তাব দেওয়া হয় না। যখন প্রস্তাবটি পেয়েছি, তখন আমার কাছে ইন্টারেস্টিং মনে হয়েছে।’

‘সেরা রাঁধুনি ১৪২৪’ অনুষ্ঠানে পূর্ণিমা কেন বিচারক হচ্ছেন? পূর্ণিমা বললেন, ‘অনেকেই সব খাবার খেতে পারে না। আমাকে নেওয়ার কারণ, আমি সব খেতে পারি। দেশের বাইরে গেলে আমার ইনস্টাগ্রাম আর ফেসবুকে নিজের ছবি কম দিই, খাবারের ছবি বেশি দিই।’

পূর্ণিমা মনে করেন, রান্নাবিষয়ক রিয়ালিটি অনুষ্ঠানের মাধ্যমে নতুন নতুন খাবারের রেসিপি সম্পর্কে জানতে পারবেন। তিনি বলেন, ‘যেটা এত দিন টেলিভিশনে চ্যানেল দেখে শিখতাম, এবার সামনাসামনি দেখা হবে। বাংলাদেশের মানুষদের বৈচিত্র্যময় সব রান্না এবার সামনাসামনি দেখব। এটা আরও বেশি রোমাঞ্চকর।’

টেলিভিশনে রান্নার অনুষ্ঠান দেখতে দেখতে বিশ্বের কয়েকজন শেফ পূর্ণিমার পছন্দের তালিকায় জায়গা করে নিয়েছেন। তাঁদের কারও রান্নার অনুষ্ঠান দেখে ঘরে বসে সেই রেসিপি তৈরির চেষ্টা করেন এই নায়িকা। পূর্ণিমা বলেন, ‘দেশের বাইরে নাইজেলা লসন, ইভান রেমন আর ভারতের সঞ্জীব কাপুর আমার খুব প্রিয় শেফ। সঞ্জীব কাপুরের অনেক রেসিপি টেলিভিশনে দেখে বাসায় রান্নার চেষ্টা করি। একেবারে ছোটবেলা থেকে তাঁর রেসিপি দেখি। বাংলাদেশে টমি মিয়া তো খুবই বিখ্যাত। সিদ্দিকা কবীর আপার রান্নার অনুষ্ঠান আমার খুব পছন্দের ছিল।’

ভোজনরসিক পূর্ণিমা নিজে খুব ভালো রান্না করেন। পরিবার আর কাছের বন্ধুরা পূর্ণিমার এই রান্না দারুণ পছন্দ করেন। বললেন, ‘সত্যি কথা বলতে ডেজার্ট আইটেম যেমন ভালো রান্না করতে পারি, অন্য আইটেমও ভালো পারি। এর মধ্যে কিছু আছে যেমন চিকেন স্টেক, চিকেন সিজলার। যাঁরা খেয়েছেন, তাঁরা সবাই আমার রান্নার প্রশংসা করেছেন।’

‘সেরা রাঁধুনি ১৪২৪’ আয়োজন করছে স্কয়ার ফুড অ্যান্ড বেভারেজ লিমিটেড। আয়োজকদের কাছ থেকে জানা গেছে, এ অনুষ্ঠানের জন্য দেশের সাটি আলাদা অঞ্চল থেকে আসা ৪০ জনকে প্রাথমিকভাবে বাছাই করা হবে। পরে ১৬ জনকে নিয়ে স্টুডিও রাউন্ড এবং বিভিন্ন ধাপে প্রতিযোগিতা পেরিয়ে একজনকে বেছে নেওয়া হবে; যিনি পাবেন ১৫ লাখ টাকা পুরস্কার।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »