বিয়ে করতে কী লাগে

Feature Image

নিউজ ডেস্কঃ বিয়ে করতে তেমন কিছুই লাগে না—দরকার একজন কনে। তবে সেই কনেকে আইনগতভাবে বিয়েতে রাজি থাকতে হবে। তবে উৎসবপ্রিয় বাঙালির বিয়ে সহজ কথা নয়। বিয়ের রয়েছে হাজারটা নিয়ম আর আনুষ্ঠানিকতা। ব্যস্ততম এই সময়ে সেসব নিয়ম মেনে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করা দুরূহ ব্যাপার। এসব দায়িত্ব এখন নির্ভরযোগ্য তৃতীয় পক্ষের হাতে তুলে দিয়ে নিশ্চিন্ত থাকেন লোকে।

বিয়ের কনে খুঁজে বের করার জন্য প্রথমে দরকার হবে একজন ঘটক। মফস্বল ও গ্রামে ঘটক পাখির মতো ঢাকায় রয়েছে বেশ কিছু ম্যাচমেকিংয়ের প্রতিষ্ঠান। এগুলো অনলাইনেও সেবা দিচ্ছে। পন্ডস্-নকশা বিয়ে উৎসবে এসেছে সে রকমই একটি ম্যাচমেকিং প্রতিষ্ঠান—বিবাহবিডি ডটকম ও শাদি বাজার। বিয়ের বর-কনে খুঁজে দেওয়ার বেশ কিছু নির্ভরযোগ্য প্যাকেজ আছে প্রতিষ্ঠানটির।

বর-কনে খুঁজে পাওয়ার পর বিয়ের আয়োজন করে দেওয়ার জন্য গড়ে উঠেছে বেশ কিছু বিবাহ অনুষ্ঠান ব্যবস্থাপনা প্রতিষ্ঠান। বিয়ে উৎসবে যোগ দেওয়া এ রকম প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে রয়েছে ভার্সেটাইল ইভেন্টস। এ ছাড়া বিয়ের জন্য বাড়ি, বাসর ও আনুষঙ্গিক সজ্জার জন্য রয়েছে গ্রিন বক্স ইভেন্ট, রয়্যাল ওয়েডিং, ক্যান্ডেল লাইট এবং বার্জার পেইন্ট।

বিয়ে উৎসবে যোগ দিয়েছে বর-কনের পোশাক সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান ড্রেসি ডেল, মানিক বেনারসি, লুবনান ও ইনফিনিটি, গয়না বিক্রির প্রতিষ্ঠান অ্যারাবিয়ানস। লুবনানের পণ্য ব্যবস্থাপক আল হামিদ জানান, ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত বরের যাবতীয় পোশাকে প্রতিষ্ঠানটি দিচ্ছে ৮ শতাংশ ছাড়। এ ছাড়া এই উৎসবস্থলে পণ্যের অর্ডার করলেই পাঞ্জাবি, শেরওয়ানি, নাগরা, কমপ্লিট স্যুটসহ সব পণ্য ঘরে পৌঁছে দেবে প্রতিষ্ঠানটি।
কনে সাজিয়ে দেওয়ার নির্ভরযোগ্য যে প্রতিষ্ঠানগুলো বিয়ে উৎসবে যোগ দিয়েছে সেগুলো হলো পারসোনা, কিউ বেলা, রেড বিউটি পারলার অ্যান্ড স্পা, অরা বিউটি পারলার, হারমোনি স্পা। শুধু তা-ই নয়, তাদের সাজানো কনেদের দেখতে কেমন লাগে, সেটা দেখানোর জন্য প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের সাজানো কনে নিয়ে হাজির হয়েছে বিয়ে উৎসবে।

উৎসবে যোগ দিয়েছে খাবার প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান ফকরুদ্দিন বিরিয়ানি, প্রিমিয়র ক্যাটারিং, রস, ইবরাহিম ক্যাটারিং, ওয়েস্টার, পানসুপারি। বিয়ের ছবি তোলা ভিডিও করার জন্য যে প্রতিষ্ঠানগুলো কাজ করছে তাদের মধ্যে অংশ নিয়েছে ওয়েডিং ডায়েরি, ড্রিম ওয়েভার, ওয়েডিং চ্যাপেল, ওয়েডিং কালারস, ইশরাত আমিন।

বিয়ের পরে মধুচন্দ্রিমায় যেতে সাহায্য করবে যে প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের মধ্যে বিয়ে উৎসবে অংশ নিয়েছে কক্স টুডে, ভ্রমণ ডটকম ডট বিডি, প্যালেস, পর্যটন করপোরেশন, মারমেইড, দোসিয়া রিসোর্ট, বেঙ্গল ট্যুরস, ছুটি, ট্যুর বিডি ডটকম। এ ছাড়া উৎসবে আরও যোগ দিয়েছে মমতাজ মেহেদী, স্পার্ক এন্ট, কাঠখোদাই করে উপহার তৈরি করা প্রতিষ্ঠান উডপেকার, চুল প্রসাধনী কুমারিকা, গৃহস্থালির পণ্য টাপারওয়্যার, বালিশ ও শোয়ার ঘরের জিনিসপত্রের প্রতিষ্ঠান ইকো ড্রিমস, আজাদ প্রোডাক্টস, বিয়ের অনুষ্ঠানের জন্য হল মেরিয়ট কনভেনশন সেন্টার এবং সৌন্দর্যপণ্য বিপণনকারী প্রতিষ্ঠান ইউনিলিভার।

এ ছাড়া মেলায় রয়েছে সব সময়ের সেরা উপহার বইয়ের জন্য প্রথমার বইয়ের স্টল। উৎসব আগামীকালও সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত চলবে।

আরো খবর »