ভারত ১ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ দেবে বাংলাদেশকে

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

ঢাকা: ভারত আগামী বছর বাংলাদেশকে এক হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ দেবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতের হাইকমিশনার হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি, বসুন্ধরায় (আইসিসি’বি) আন্তর্জাতিক কন-এক্সপো, সেফটি, ওয়াটার, সোলার, পাওয়ার ও রিয়েল এস্টেট প্রদর্শনীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি একথা জানান।

প্রদর্শনীটির আয়োজন করেছে সেমস গ্লোবাল। ওয়াটার এক্সপোর সহযোগী আয়োজক পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়। প্রদর্শনীতে বিশ্বের ১৫টি দেশের ২৫০টি প্রতিষ্ঠানের ৩৫০টি স্টল রয়েছে।

শ্রিংলা বলেন, ভারতের বহরামপুর, বাংলাদেশের ভেড়ামারা, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া ও ভারতের ত্রিপুরার মধ্যে বিদ্যুৎ সঞ্চালনের লাইনটির কাজ শেষ হবে শিগগিরই। ফলে আগামী বছরে বাংলাদেশকে এক হাজার মেগাওয়াট বিদ্যৎ দেওয়া সম্ভব হবে। বাংলাদেশের পাওয়ার সেক্টরে ভারত অনেক দিন ধরে কাজ করছে। ‍গত কয়েক বছরে উভয় দেশ পাওয়ার সেক্টরে বেশ উন্নতি করেছে। তাই বাংলাদেশের পাশে ভারত আছে এবং থাকবে।

এসময় ৪ ডিসেম্বর ভারতের সোলার মেলায় বাংলাদেশকে অংশগ্রহণের আহ্বান জানান ভারতীয় হাইকমিশনার।

প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম বলেন, এ ধরনের সেমিনার বা অনুষ্ঠান বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। যার বড় উদাহরণ এই সেমিনার। প্রাইভেট সেক্টরের অনেক উন্নতি হয়েছে। আগে বড় বড় সেমিনার কিংবা মেলা সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলো আয়োজন করতো। কিন্তু এখন এ ধরনের অনুষ্ঠানের আয়োজন করছে প্রাইভেট প্রতিষ্ঠান। সেখানে সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলো সহযোগী আয়োজক হিসেবে কাজ করছে। এখানেই প্রতীয়মান হয় দেশের প্রাইভেট সেক্টর এগিয়ে গেছে।

এফবিসিসিআই সভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন বলেন, বাংলাদেশের গ্রামাঞ্চলের প্রায় ৪৫ লাখ বাড়িতে সোলার প্যানেলের মাধ্যমে মানুষ বিদ্যুৎ ব্যবহার করছে। যা কোনো দেশেই নেই। ভারত ও চীন থেকে যারা সোলারের ব্যবসা করতে এ মেলায় এসেছেন তারা ভালো ব্যবসা করবেন।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »