মানিকগঞ্জে ১২ বস্তা চাল আটক

Feature Image

মানিকগঞ্জ থেকে জালাল উদ্দিন ভিকুঃ  মানিকগঞ্জের দৌলতপুর উপজেলার বাঘুটিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান তোফাজ্জল হোসেন ও সচিব আব্দুল বাছেদ যোগসাজসে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থদের নামে বরাদ্দকৃত জি,আর এর লুজ ১২ বস্তা চাল কালোবাজারে বিক্রির অভিযোগ উঠেছে । বৃহস্পতিবার সন্ধায় দৌলতপুর উপজেলার জিয়নপুর বাজার দিয়ে ভ্যান যোগে নিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয় জনতা আটক করে ।

পরে দৌলতপুর থানা পুলিশকে খবর পেয়ে লুজ ১২ বস্তা চাল জব্দ করে । প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানা গেছে – ভ্যান গাড়িতে ১২ বস্থা চাউল নিয়ে বাঘুটিয়া ইউনিয়ন পরিষদের সচিব ও দুই চকিদার নিয়ে যাওয়ার সময় সায়েদুর মোল্লা, ইকবাল হোসেন, ইয়ানুর মৃধাসহ স্থানীয় কয়েকজন চ্যালেঞ্জ করে। এসময় সন্তোষ জনক উত্তর দিতে না পেরে ইউপি সচিব আব্দুল বাসেদ পালিয়ে যায়।

এবিষয়ে দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার কানিজ ফাতেমা জানালে তিনি পুলিশ পাঠিয়ে দেন। স্থানীয়রা অভিযোগ করেছেন বিভিন্ন প্রকল্পে বরাদ্দকৃত চাল সাধারন মানুষকে ওজনে কম দিয়ে চুরি করে গোডাউনে জমা করে রাখা হয়েছিল।ফাঁক পেয়ে সেই চাল কালো বাজারে জাফরগঞ্জ বাজারের একজন ব্যবসায়ীর কাছে এই চাল বিক্রির চেস্টা চলছিল বলে জানান। তারা অভিযোগ করে বলেন এরসাথে চেয়ারম্যান জড়িত। চেয়ারম্যানের সায় না থাকলে সচিব বা চকিদার এই কাজে সাহস পেতনা।

দৌলতপুর থানার এসআই মুক্তার হোসেন চাউল আটকের কথা স্বীকার করে জানান চৌকিদার দুজন জানিয়েছেন সচিবের নির্দেশে তারা ভ্যানে চাউল তুলে দেন। জিজ্ঞাসাবাদেরপর চৌকিদার দুজনকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।
এ ব্যাপারে সচিব আব্দল বাছেদ এর সাথে যোগাযোগের করা হলে তিনি চাল পাঁচারের বিষয়টি অস্বীকার করেন। তিনি জানান পরিষদের গোডাউনে কোন চাল ছিলনা। পুলিশের কাছে চকিদারদের স্বীকারোক্তির বিষয়টি সম্পর্কে তিনি বলেন এটা ষড়যন্ত্র।

অপর দিকে বাঘুটিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান তোফাজ্জল হোসেন জানান চাল আটকের বিষয়ে তিনি কিছুই জানেননা। পরিষদের গোডাউনে কোন চাল ছিলনা। একটা মহল আমাকে ষড়যন্ত্র করে ফাসানো চেস্টা করছে।

এবিষয়ে দৌলতপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রকিবুজ্জামান জানান- উপজেলা নির্বাহী অফিসার আমাকে বিষয়টি জানালে আমি দ্রæত পুলিশ পাঠাই তারা লুজ ১২ বস্তা চাল থানায় নিয়ে আসে। বিভিন্ন বরাদ্দকৃত চাল সাধারন মানুষকে বিতরনের সময় ওজনে কম দিয়ে গোডাউনে জমা করে রাখা হয়েছিল বলে মনে করেন।ফাঁক পেয়ে সেই চাল কালো বাজারে বিক্রি করার সময স্থানীয়রা আটক করে । তিনি জানান বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরো খবর »