খোকসায় কমিউনিটি পুলিশিং ডে পালিত

Feature Image

জনগণের দোরগোড়ায়া পুলিশি সেবা পৌছে দিতে কমিউনিটি পুলিশিং জরুরী-সদর খান

খোকসাঃ  জনগণের দোরগোড়ায়া পুলিশি সেবা পৌছে দিতে কমিউনিটি পুলিশিং সেবা জরুরী বলে মন্তব্য করেন জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব সদর উদ্দিন খান।

সারা দেশের ন্যায় বর্ণাঢ্য র্যা লী ও আলোচনা সভার মধ্যদিয়ে খোকসা কমিউনিটি পুলিশিং ডে পালিত হয়। কমিউনিটি পুলিশিং খোকসা উপজেলা শাখার সভাপতি আরিফুল আলম তসর এর সভাপতিত্বে র্যা লী ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব সদর উদ্দিন খান, বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ নাজমুল হুদা, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধার সম্পাদক ও পৌর মেয়র প্রভাষক তারিকুল ইসলাম, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোঃ ফজলুল হক, বক্তব্য দেন প্রথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি আবু হানিফ।

 

বক্তগণ বলেন শুধু বাৎসরিক একটি দিন ঘটাকরে পালন করেই কমিউনিটি পুলিশিং কার্যক্রম শেষ হয় না। অন্তত প্রতি মাসে একটি করে মিটিং করলেও প্রতিটি ইউনিয়নের কমিউটি পুলিশিং কার্যক্রম আরো জোরালো হবে। গ্রামের সাধারণ মানুষের পুলিশি সেবা দোরগোড়ায় পৌছে দিতেই কমিউটি পুলিশিং সেবা বৃহত ভূমিকা পালন করে আসছে। কুষ্টিয়া জেলার তথা সারা বাংলাদেশের মধ্যে খোকসা উপজেলা কমিউটি পুলিশিং সেরা উপজেলা হিসাবে নির্বাচিত হওয়ায় কমিউটি পুলিশিং সেবা দাতাদের দায়িত্ব ও কর্তব্য আরো বেড়েগেছে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় আরো বলেন পুলিশ ও সমাজের প্রতিটি মানুষের মাঝে আস্থার বন্ধন হিসাবে কমিউটি পুলিশিং অনেক ভুমিকা পালন করে। সমাজ থেকে চোর, ছ্যাচোর, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ নির্মূলে কমিউটি পুলিশিং পুলিশের সকল কাজের প্রথম সংবাদ দাতা হিসাবে কাজ করে। প্রতিটি কমিউটি পুলিশিং সেবা দাতাদের অবশ্যই সরকারীভাবে স্বীকৃতি দেওয়া উচিত।

 

কমিউটি পুলিশিং ডে এর আলোচনা সভার আগে উপজেলা চত্বর থেকে এক বর্ণাঢ্য র্যা লী স্থানী খোকসা বাজার প্রদক্ষিণ করে উপজেলা হলরুমে এসে শেষ হয়। খোকসা থানা প্রশাসনের আয়োজনে প্রায় ৫শত কমিউটি পুলিশিং সদস্যের অংশ গ্রহণে র্যা লী ও আলোচনা সভা প্রাণবন্ত হয়ে উঠেছিলো। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন উপজেলা কমিউটি পুলিশিং এর সাধারণ সম্পাদক ওয়াহেদুল ইসলাম।

আরো খবর »