বাবুডাইংয়ে পাখিদের নিরাপদ আবাসনের লক্ষ্যে গাছে গাছে হাঁড়ি

Feature Image

 

চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে জাকির হোসেন পিংকুঃ  শীতের শুরুতেই অতিথি পাখিদের আনাগোনা শুরু হয় বরেন্দ্র ভূমির গহীনে অবস্থিত বাবুডাইং বনভূমিতে। লাল মাটির এ বনভূমি রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার মোহনপুর ও চাঁপাইনবাবগঞ্জের সদর উপজেলার ঝিলিম ইউনিয়নের মাঝে অবস্থিত। মৌসুমের এসময় দেখা যায় হরেক রকমের আর হরেক রঙের পাখি।

তাদের কলকাকলিতে মুখরিত থাকে চারিদিক। সৃষ্টি হয় মনোরম পরিবেশের। আমন ধান কাটার এ মৌসুমে পাখিদের সাথে দেখা মেলে পাখি শিকারীদেরও। এছাড়া স্থানীয় শিশু-কিশোররাও দল করে পাখি ধরে থাকে। তাই পাখিদের রক্ষা ও তাদের নিরাপদ আবাসনের লক্ষে বাবুডাইং আদিবাসী বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও চাঁপাইনবাবগঞ্জে প্রথম আলো বন্ধুসভার পক্ষ থেকে গাছে গাছে মাটির হাঁড়ি বেঁধে দেওয়া হয়েছে। পাখিদের রক্ষায় শনিবার দিনব্যাপী বাবুডাইং গ্রাম ও গ্রামের পাশে বনভূমির গাছগুলিতে এসকল হাঁড়ি বেঁধে দেয়া হয়।

এসময় ‘পাখি প্রকৃতির অংশ, এদের রক্ষায় এগিয়ে আসুন’, ‘পাখি পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা করে, এদের রক্ষায় এগিয়ে আসুন’, ‘পাখি প্রকৃতিতে সৌন্দর্যই বৃদ্ধি করে না, পরিবেশেরও ভারসাম্য রক্ষা করে’, ‘বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা আইনে পাখি শিকার দন্ডনীয় অপরাধ’, ‘পাখি প্রকৃতির অংশ, এদের সংরক্ষণ করি, পরিবেশ বাঁচাই’ ইত্যাদি ¯েøাগাণ সম্বলিত ফেস্টুনও গাছগুলোতে টাঙ্গানো হয়। বিদ্যালয়ে গিয়ে শিক্ষার্থীদের মাঝে দেওয়া হয় পাখি আর পাখি রক্ষা সম্পর্কিত সচেতনতামূলক বক্তব্য। এছাড়াও পাখি ধরা ও মারা, পাখির ডিম ও বাসা নষ্ট না করার জন্যও শিক্ষার্থীদের শপথ করানো হয়। তবে সাংগঠনিকভাবে চাঁপাইনবাবগঞ্জে গাছে কলস বেঁধে পাখির নিরাপদ আবসনের কাজটি প্রথম শুরু করে ‘সেভ দ্য ন্যাচার’ নামে একটি সংগঠন।

 

শনিবারের কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন আদিবাসী বিদ্যালয়ের শিক্ষক আলী উজ্জামান নূর সহ শিক্ষকবৃন্দ, চাঁপাইনবাবগঞ্জ বন্ধুসভার সাধারণ সম্পাদক নয়ন আহমেদ, নারী বিষয়ক সম্পাদক সোনিয়া খাতুন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের জেষ্ঠ্য সাংবাদিক আনোয়ার হোসেন প্রমুখ।

আরো খবর »