ইবির আবাসিক হল থেকে চোর আটক

Feature Image

ইবি প্রতিনিধি,স্বাধীনবাংলা২৪.কম

এ আর রাশেদ: ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) শহীদ জিয়াউর রহমান হল থেকে এক চোরকে আটক করেছে আবাসিক শিক্ষার্থীরা। ওই চোরের নাম সজল হোসেন। সে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিকটস্থ দু:খী মাহমুদ (ডিএম) কলেজের বানিজ্য শাখার দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্র এবং তার বাবা বিশ্ববিদ্যালয়ের জেনেরেটর রুমের কর্মচারী। সজল ঝিনাইদহ জেলার শৈলকুপা থানার আনন্দ নগর গ্রামের মোস্তাফিজুর রহমানের ছেলে।

মঙ্গলবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে হলের ২০৯ নং রুম থেকে ল্যাপটপ চুরি করার সময় তাকে হাতেনাতে ধরে ফেলে শিক্ষার্থীরা। পরে তাকে মারধর করার পর আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার জন্য সকাল ৯টার দিকে ওই হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. আব্দুস শাহীদ মিয়ার উপস্থিতিতে প্রক্টর অধ্যাপক ড. মাহবুবর রহমানের নিকট হস্তান্তর করে শিক্ষার্থীরা।

প্রত্যাক্ষদর্শী ও ওই হলের আবাসিক শিক্ষার্থীরা জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যান্তরে ইদানিং চুরির মাত্রা বেড়ে গেছে। বিশেষ করে জিয়া হলে গত কয়েক সপ্তাহে নগদ টাকাসহ মোবাইল ও ল্যাপটপ চুরির ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে হলের ২০৯ নং রুমে ল্যাপটক চুরি করতে যায় সজল। এসময় ওই রুমের এক শিক্ষার্থী বাথরুমে যায়। বাথরুম থেকে ফিরে এসে সে দেখে তার রুমে একটি অচেনা ছেলে তার ল্যাপটপ নিয়ে বের হচ্ছে। এসময় রুমের অন্যান্য শিক্ষার্থীরা মিলে তাকে হাতেনাতে ধরে ফেলে। পরে হলের অন্যান্য শিক্ষার্থীর মিলে তাকে গণ ধোলাই দেয়। এরপর সকালে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসেন নিকট তাকে হস্তান্তর করে তারা।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. মাহবুবর রহমান বলেন, ‘ওই ঘটানার পর তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশে দেওয়া হয়েছে এবং জিজ্ঞাসাবাদে তাকে মাদক চোরাচালানের সাথে সম্পৃক্ততার প্রমান পাওয়া গেছে। এখন তার দেয়া তথ্য মতে অভিযান চলছে।’

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »