কালিয়াকৈরে নারী পোশাক শ্রমিকের রহস্যজনক মৃত্যু: দ্বিতীয় স্বামী আটক

Feature Image

জেলা প্রতিনিধি, স্বাধীনবাংলা২৪.কম

গাজীপুর থেকে আলমগীর হোসেন: গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার চন্দ্রা সরকারবাড়ী এলাকায় ফরিদা আক্তার (৩০) নামের এক নারী পোশাক শ্রমিকের রহস্য জনক মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের দ্বিতীয় স্বামী মামুন হোসেন খাঁন (৫০) কে আটক করেছে থানা পুলিশ।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে কালিয়াকৈর থানা পুলিশ নিহতের নিজ বাসা থেকে ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে।

কালিয়াকৈর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো: আজিম হোসেন নিহতের মরদেহ উদ্ধার ও স্বামীকে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নিহত ফরিদা বেগম গাইবান্ধার গোবিন্ধগঞ্জ থানার বাহাদুরপুর এলাকার খাদেম মিয়ার মেয়ে এবং সে উপজেলার কালামপুর এলাকায় তার  দ্বিতীয় স্বামী মামুন হোসেন খান এর সাথে থেকে স্থানীয় ফারইস্ট নীটওয়ার লিমিটেড কারখানায় ফোল্ডিং ম্যান হিসেবে চাকুরী করতো।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, নিহত ফরিদার প্রথম স্বামী উপজেলার চন্দ্রা এলাকার ফারইস্ট নীটওয়ার লিমিটেড কারখানায় নিরাপত্তাকর্মী হিসেবে চাকুরী করতো। ফরিদা একই কারখানায় ফোল্ডিং ম্যান পদে চাকুরী করতো। চাকুরী করার নিমিত্তে এক বছর আগে প্রেমের সর্ম্পক হয়ে মামুন হোসেনকে বিয়ে করলে তার প্রথম স্বামী তাকে ছেড়ে চলে যায়। পরে চান্দরা এলাকার দবির সরকারের বাড়ীতে দ্বিতীয় স্বামীকে নিয়ে ভাড়া থাকতো নিহত ফরিদা আক্তার।

গত সোমবার রাতে ফরিদা ও মামুন রাতের খাবার খেয়ে একই কক্ষে ঘুমিয়ে পড়ে। সকালে মামুন ঘুম থেকে জেগে স্ত্রী ফরিদা আক্তারের ঝুলন্ত লাশ দেখে থানা পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়।

নিহতের স্বামী মামুন হোসেন জানায়, সে রাতে ঘুমের ট্যাবলেট খেয়ে ঘুমিয়ে পড়ে। স্ত্রী ফরিদা কখন ফাঁিস দিয়ে আত্নহত্যা করেছে তা সে কিছুই বুঝতে পারেনি।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

 

আরো খবর »