হিংসা-বিদ্বেষ গুম খুন হত্যা নৈরাজ্য প্রতিষ্ঠার জন্য কি নূর হোসেন জীবন দিয়েছিল?

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

ঢাকা: রাজনীতির নামে হিংসা-বিদ্বেষ, গুম, খুন, হত্যা, নৈরাজ্য আর জীবন্ত মানুষ পুড়িয়ে মারার জন্যই কি নূর হোসেন জীবন দিয়েছিল? নূর হোসেনের পবিত্র আত্মা অভিশাপ দিচ্ছে আর ঘুরে ঘুরে আমাদেরকে এ সব প্রশ্ন করছে! আমাদের এখন বাকরুদ্ধ। আমরা এখন নূর হোসেনের প্রশ্নের উত্তর দিতে পারছি না। আমরা আমাদের অন্তরাত্মার কাছে নূর হোসের প্রশ্নের উত্তর খুঁজেফিরি, কিন্তু কোনো উত্তর পাই না। আমরা আত্মপ্রবঞ্চনায় লিপ্ত। আমরা নূর হোসেনের চেতনার কথা ভুলে গিয়েছি। আমরা এখন মুক এবং বধির।

শহীদ নূর হোসেন দিবস উপলক্ষে এক শোকবার্তায় বাংলাদেশ মানবতাবাদী দল -বিএইচপির পক্ষ থেকে দলের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান এবং মহাসচিব ড. সুফি সাগর সামস্ উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

শোকবার্তায় তাঁরা আরো বলেন, ১০ নভেম্বর শহীদ নূর হোসেন দিবস। বাংলাদেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে এক গুরুত্বপূর্ণ দিন। ১৯৮৭ সালের এই দিনে শহীদ নূর হোসেনের রক্তে রঞ্জিত হয়েছিল ঢাকার রাজপথ। আমরা গভীর শ্রদ্ধারসঙ্গে স্মরণ করছি শহীদ নূর হোসেনসহ গণতন্ত্রের জন্য জীবনদানকারী সকল শহিদদের।

শোকবার্তায় তাঁরা আরো বলেছেন, ১৯৮৭ সালের এই দিনে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলনের গণযোদ্ধা নূর হোসেন ‘স্বৈরাচার নিপাত যাক, গণতন্ত্র মুক্তি পাক’ এই শ্লোগান শরীরে ধারণ করে স্বৈরাচারের বিরুদ্ধে গণন্দোলনে অংশগ্রহণ করেছিলেন। শহীদ নূর হোসেন গণতান্ত্রিক বাংলাদেশ গড়তে বুকের তাজা রক্ত ঢেলে দিয়েছিলেন। বিএইচপি নূর হোসেনসহ গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে আত্মদানকারী সকল শহীদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করছে।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »