বিচ্ছেদের অব্যাক্ত কন্দন

Feature Image

হুমায়ন কবিরঃ

কি বলে শুরু করবো ভেবে পচ্ছিনা।আমি জানি তোমার সাথে কথা বলার মতো সৎ সাহস আমি রাখিনাই। অযথা কোন কারন ছাড়াই তোমার সাথে যোগাযোগ বন্ধ করে দেওয়াই আমি বড় ধরনের অপরাধ করেছি। আমি জানি, তুমি আমাকে খুব ভালো বাসো। কিন্তু তোমার এই ভালোবাসার মর্যাদা আমি দিতে পারিনাই। আমি জানি এই অপরাধের ক্ষমার যোগ্য নহে…!

কিন্তু আমি চাইনা আমার জন্য তুমি আর কোন কষ্ট পাও!

পারিবারিক ও ব্যক্তিগত বিষয় চিন্তা করে দেখলাম, আমার বিয়ে করতে বেশ অনেক দেরি হবে, আর তোমাকে এতোদিন আশা দিয়ে রাখি কি করে, আর তুমিই বা আমার আশায় পথ চেয়ে থাকবে কোন ভরসায়। যদি কোন পরিস্থিতিতে আমাদের বিয়ে না হয় ?

তবে সেটা হবে তোমার সাথে চরম প্রতারনা, আর সেই জন্য তোমাকে আমি আশা দিয়ে রাখতে পারবোনা। তুমি খুব ভালো ও সুন্দর মেয়ে। তোমাকে কষ্ট দিলে আল্লাহ আমাকে ক্ষমা করবেনা। তাই ভেবে চিন্তেই আর মায়া বাড়াইতে চাইনাই। এতে করে হইতোবা দুইজনারই মঙ্গল হবে ও ভাল থাকবো !

আমার এক জাইগা সরকারি চাকরির কথা চলছে। হয়তোবা চাকরিটা হবেই। তবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে পারি তা হলে আমার ফ্যমেলিকে তোমার কথা তোমার মত নিয়েই জানাবো। যদি উভয় ফ্যমেলি মতামত দেই তবেই আমাদের বিয়ে হতে পারে।

কিন্তু আমার জন্য তুমাকে অপেক্ষা করতে বলবো না। আর যদি তোমার এর মধ্যে বিয়ে হয়ে যাই তো হোক…তবুও আমি আমার মনকে সান্তনা দিতে পারবো……….!

তোমার সাথে বেশ কিছুদিন যোগাযোগ বন্ধ থাকলেও প্রতিটা মুহুত্বে তোমার কথাই বেশি মনে পড়েছে হৃদয় আঙ্গিনায়। বুকের চাপা কষ্টকে সঙ্গি করে চলছি। আর এই চাপা কষ্টে তুমার fb তে চোখ রাখলেই বুকের মধ্যে ছ্যানাত করে ওঠে। ,তুমার fb তে তাকালেই দুই চোখে জলে ছল ছল করে। যেন fb তে ঢুকতে সাহস পাইনা। এমনটি কেন হয় জানিনা…..

 

আর তুমি জানতে চেয়েছ আমি কেমন আছি? সত্তিই বলছি আমার মন ভালো নেই।

জানি কথা গুলো বলার অধিকার আমার নেই, তবুও বলবো,নিজের প্রতি যত্ন নিবে, ঠিক মতো খাওয়া দাওয়া করবে, অবশ্যই ঠিক মতো লেখাপড়া করবে। আর রোযা করলে ইফতারের পর প্রচুর পানি পান করবে plz।

আর তোমার মনে অনেক কষ্ট দিয়ে ফেলেছি, পারলে আমাকে…………!!

আরো খবর »