রংপুরে ২ হাজার জনকে আসামি করে পুলিশের মামলা

Feature Image

জেলা প্রতিনিধি, স্বাধীনবাংলা২৪.কমরংপুর: রংপুরে ফেসবুকে ‘ধর্ম অবমাননার’ অভিযোগ তুলে হিন্দুদের বাড়িঘরে হামলা ও আগুন দেওয়ার ঘটনায় দুটি মামলা করা হয়েছে।

শুক্রবার বিকেলে সদর উপজেলার ঠাকুরপাড়া গ্রামের ওই ঘটনায় গ্রেফতার করা হয়েছে এখন পর্যন্ত ৫৩জনকে।

পুলিশের পক্ষ থেকে সদর থানা ও গঙ্গাচড়া থানায় করা দুই মামলায় অজ্ঞাত দুই হাজার জনকে আসামি করা হয়েছে।

সদর থানার ওসি (তদন্ত) আব্দুল আজিজ এবং গঙ্গাচড়া থানার ওসি জিন্নাত আলী সমকালকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয়রা জানান, সদরের পাগলাপীর সলেয়াসা এলাকায় সম্প্রতি টিটু রায় নামের এক তরুণ ফেসবুকে ধর্ম অবমাননা করে পোস্ট দেয় বলে অভিযোগ ওঠে। ওই তরুণের শাস্তির দাবিতে শুক্রবার জুমার নামাজের পর সলেয়াসা বাজার এলাকায় বিক্ষোভ সমাবেশ ডাকা হয়।

নামাজের পর কয়েকশ’ মানুষ সেখানে সমবেত হয়ে রংপুর-দিনাজপুর মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করেন। এ সময় ওই সড়কের দু’পাশে শত শত যানবাহন আটকা পড়ে। খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে গিয়ে বিক্ষোভকারীদের রাস্তা ছেড়ে দেওয়ার আহ্বান জানায়। এ নিয়ে পুলিশের সঙ্গে তাদের কথা কাটাকাটি, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষ বাধে।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ ৫০ রাউন্ড টিয়ার গ্যাসের শেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। এসময় পুলিশসহ আহত হন অন্তত ১৫ জন। পরে হাসপাতালে একজন মারা যান। পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষের একপর্যায়ে বিক্ষোভকারীরা ঠাকুরপাড়া গ্রামে ৮ থেকে ১০ হিন্দু বাড়িতে আগুন দেয় ও ভাংচুর চালায়।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »